গুগল এর কিছু গোপন টিপস বা কোড যা আপনার গুগল অনুসন্ধান কে আরো সহজ করে তুলবে।


আপনি কি শিরোনাম এর কিছু নির্দিষ্ট কীওয়ার্ড একটি ওয়েব পেজ খুঁজে পেতে চান?
এখন intitle অনুসন্ধান অপারেটর দিয়ে আপনি এটি সেকেন্ডের মধ্যে খুঁজে পেতে পারেন।
উদাহরণস্বরূপ “intitle: Cyber Security” টাইপ করুন
এবং সমস্ত অনুসন্ধান ফলাফল যাদের শিরোনামগুলিতে সাইবার নিরাপত্তা রয়েছে
এমন সামগ্রীগুলি গুগল আপনাকে দেখাবে।

Search For A Specific Phrase

গুগল অনুসন্ধান কীওয়ার্ডগুলি ঘুরে বেড়ায়। আপনার অনুসন্ধান ক্যোয়ারীর সাথে আপনি যত বেশি সুনির্দিষ্টভাবে পাবেন সেগুলি আরও প্রাসঙ্গিক ফলাফল পাবেন।
তাই আপনি কি খুঁজছেন এবং বক্ররেখা প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড মধ্যে ডবল কোট মধ্যে টাইপ করুন (“”)।
যখন আপনি এই ডাবল উদ্ধৃতিগুলির মধ্যে একটি নির্দিষ্ট শব্দ টাইপ করেন,
তখন গুগল শব্দটির ক্রমানুসারে যথাযথ শব্দগুচ্ছ ফলাফল আনবে।
উদাহরণস্বরূপ, যদি আপনি সার্চ বারে *Despacito song download “320kbps”* টাইপ করেন,
তবে Google আপনাকে এতে Despacito গান এর 320kbps কুয়ালিটির ফলাফলগুলি দেখাবে।
এই ধরনের অনুসন্ধান অন্য সব আলাদা ফলাফল বাতিল করবে।

Minus(-)

আপনার অনুসন্ধান ফলাফলগুলি থেকে যে শব্দগুলি বাদ দিতে চান
সেগুলি আগে মাইনাস যোগ করুন
এই ট্রিকটি যখন আপনি একটি শব্দ জন্য অনুসন্ধান করেন এবং যে অনেক ফলাফল উত্পাদন হয়
এবং তাদের অধিকাংশ যদি আপনার আগ্রহের না হয়। তাই শুধু (-) ঐ কীওয়ার্ডের সামনে লিখুন
এবং আপনার অনুসন্ধান ক্যোয়ারীর জন্য একটি ফিল্টার ফলাফল পান।
example: best phone under 10k -symphonyএখন গুগল আপনাকে স্যাম্ফোনি ছাড়া অন্যসব মোবাইল দেখাবে

Set Timer

এখন গুগল সার্চ বার ব্যবহার করে আপনি একটি বই পড়ার সময় একটি টাইমার সেট করুন,
কোনও রচনা লিখতে বা লম্বা কাজের ঘন্টার মধ্যে নিছক জন্য।
শুধু অনুসন্ধান বারে “Timer” বা “Set Timer” টাইপ করুন
এবং আপনার নিজের উদ্দেশ্যের জন্য একটি টাইমার তৈরি করতে পারেন।
আপনি এই টাইমার সঙ্গে “stopwatch” বিকল্প ব্যবহার করতে পারেন।


Do A Barrel Roll

আপনার অনুসন্ধান বারে “Do A Barrel Roll” (উদ্ধৃতি চিহ্ন ব্যতীত) টাইপ করুন
এবং এটি আপনার গুগল পেইজ এ একটি ৩৬০ডিগ্রী তে রোল দিবে।

Askew

অনুসন্ধান বারে “Askew” টাইপ করুন এবং আপনার স্ক্রিন্টি সামান্য বাকা হয়ে যাবে।

Covert Number To Words


এটি খুবই দরকারী যখন আপনার কাছে একটি বড় সংখ্যা আছে এবং এটি কি বুঝতে পারছেন না।
শুধু “1098762341 = English” Google অনুসন্ধান বারে আপনার নম্বরটির = English টাইপ করুন
এবং শব্দগুলির আকারে আপনার সংখ্যাগুলি পাবেন।

জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণ করতে ৩টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় জেনে নিন

আমার মনে হয়, আমাদের জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণের যে ধারনাটি প্রচলিত, সেটিতে বেশ বড় ধরনের সমস্যা রয়েছে। কারন, কাওকে জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণ করতে বললে যা ঘটে তা হল, আমি আসলে তাকে তার আশপাশের নির্ধারিত কিছু বাঁধা নিয়মের মধ্যে তাকে ফেলে প্রশ্নটি করি।

তো মানুষ এই নিয়মের মধ্যে নিজের লক্ষ্য এইভাবে তৈরি করে,
  • আমাকে নিয়মিত ভালো রেজাল্ট করতে হবে যেন আমি ভালো হাই স্কুলে যেতে পারি,
  • হাই স্কুলে ভালো করলে আমি ভালো কলেজে যাব।
  • কলেজে ভালো রেজাল্ট করে এবং ভালো প্রস্তুতি নিয়ে আমাকে ভালো একটা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে হবে, এখন ধরলাম আমি একজন সফল Lawyer হবার স্বপ্ন দেখে এমন একজনের পক্ষ থেকে যদি বলি, আমাকে এমন বিশ্ববিদ্যালয়েই ভর্তি হতে হবে যেখানে আমার সার্টিফিকেটের মূল্য এবং লেখাপড়ার মান খুব উন্নত।
  • বিশ্ববিদ্যালয়ে আমার CGPA ঠিক রেখে আমাকে গ্র্যাজুয়েশন শেষ করতে হবে।
  • তারপর আমাকে প্র্যাকটিস করতে হবে কয়েক বছর।
  • এই পদ্ধতি ঠিক থাক আমার পূর্ণ হলে আমি একজন Lawyer হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিতে পারবো।

এভাবেই সাধারনত টিনেজাররা চিন্তা করে থাকে যে তাদের জীবনে এই স্টেপ গুলো টিক করে তাকে সামনে এগিয়ে যেতে হবে।

এখন দেখি আসলে কি হয়, Lawyer দের কথাই ধরি। ৫০ ভাগের কাছাকাছি Lawyer রা তাদের প্রফেশন নিয়ে ডিপ্রেশনে ভোগে। এটা শুধু আমাদের এইখানেই যে সমস্যা তা নয়, আমারিকা এবং অস্ট্রেলিয়াতেও জরিপ করে এই নাম্বারটা প্রায় কাছাকাছি পাওয়া যায়। তো কেন বাচ্চারা তাদের জীবনে এমন লক্ষ্য নির্ধারণ করছে, যা তারা মনে করেছিল এটাই তার জন্য সঠিক গন্তব্য, কিন্তু লক্ষ্যে পৌঁছানোর পরও তাদের একটা সময় হতাশ হতে হচ্ছে। একটা সময় মনে হতে থাকে যে, এটা না করে যদি অন্য কিছু করতাম তাহলে আমার জন্য ঠিক ছিল। এই প্রফেশন আমার জন্য না।

এটা যে শুধু Lawyer দের সাথে হচ্ছে তা নয়, অন্যান্য প্রফেশনের ক্ষেত্রেও একই সমস্যা দেখা যায়।

এই সমস্যার মূল কারন হল, জীবনের এই লক্ষ্যগুলো মন থেকে নির্ধারিত না। এই লক্ষ্যগুলো সমাজের কিছু বাঁধা ধরা নিয়মের মধ্য থেকে নির্ধারণ করা লক্ষ্য। কিন্তু এই নিয়মগুলো আমাদের জীবনে কোন খারাপ উদ্দেশ্য নিয়ে না, বরং আমাদের safety এর জন্য নির্ধারণ করা, কারন অনেক আদি যুগ থেকেই মানুষ টিকে থাকার জন্য একজন আরেকজনের লক্ষ্য রাখতো এবং নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম সবাই পালন করত যেন বাইরে থেকে কোন অজানা আঘাত না আসে যা তাদের অস্তিত্তে আঘাত আনতে পারে। যেমন, মেয়েরা ছেলেদের থেকে শারীরিক শক্তিতে দুর্বল ছিল বলে ছেলেরা মেয়েদের সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিত। এক একটি পরিবার কম হলেও ৪-৫টা বাচ্চা নিত কারন, চিকিৎসা ব্যাবস্থা ভালো না হওয়ায় অনেক বাচ্চাই মারা যেত, ইত্যাদি।

এখন সমস্যা হচ্ছে, আমাদের সমাজের মানুষগুলো বর্তমান পৃথিবীর সবকিছু অনেক পরিবর্তন হবার পর এখনো এই নিয়মের বাধন থেকে মুক্ত হতে চায়না। তাই আমি প্রচলিত নিয়মে জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণের পক্ষে না কারন, এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে আমার সমাজের নিয়মের বাইরে চিন্তা করার সুযোগ খুবই কম।

আমার পরামর্শ হচ্ছে, জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণ আমরা নিজেরাই করতে পারি ৩টা প্রশ্নের উত্তর দেয়ার মাধ্যমে। এবং আমার মতে জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণে এটি হল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৩টি প্রশ্ন।

প্রথম প্রশ্নটি হলঃ আমার জীবনে কোন কোন অভিজ্ঞতাগুলো আমি চাই আমার সাথে হোক?


এখন আমি তোমাদের বলতে পারি কেন এটা এত গুরুত্বপূর্ণ। দুই ধরনের লক্ষ্য আছে, একটা হল Means Goal (উপায়), আরেকটা হল End Goal.

মানুষ আসলে Means Goals গুলো পূরণ করার পেছনে বেশী সময় দেয় কিন্তু তারা বুঝে না যে Means Goal এবং End Goal এর মধ্যে পার্থক্য আছে। Means Goal হল, CGPA ভালো করা, গ্রাজুয়েশন শেষ করা, নির্দিষ্ট একটা চাকরী পাওয়া, অবসরের জন্য টাকা জমানো ইত্যাদি। কিন্তু ঐ মানুষদের যদি জিজ্ঞাসা করা হয় কেন তুমি এই কাজগুলো করতে চাও? উত্তরে একটা কারন আসে। “আমি ভালো CGPA পেতে  চাই কারন উচ্চতর শিক্ষার জন্য এটা আমাকে সাহায্য করবে।” এই “কারন” আমাদের End Goal এর দিকে নিয়ে যায়। End Goal হল অসাধারণ কিছু যার জন্য মানুষ পরিপূর্ণ তৃপ্তি পায়। এটা নিজের সন্তান প্রথম কোলে নেয়ার মত, প্রথম নিজের ব্যাবসা খুলে প্রথম ক্রেতাকে সার্ভিস দেয়ার মত, প্রথম বই পড়ে শেষ করার মত, নিজের তৈরি করা শিল্প নিয়ে সবাই প্রশংসা করার মত আনন্দ পাওয়া হচ্ছে End Goal.

সুশান্ত পাল: পড়া মনে রাখার ১০টি কৌশল মেনে চলুন


তাই আমি বলব জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণের প্রশ্নের উত্তর দেয়ার ক্ষেত্রে Means Goal এর কথা ভুলে দিয়ে সরাসরি End Goal নিয়ে চিন্তা কর, তোমার জীবনে কোন অভিজ্ঞতাগুলো তুমি চাও? এখান থেকেই তুমি তোমার অভিজ্ঞতার ইচ্ছাগুলো লিখে রাখতে পারো। এবং প্রশ্নের উত্তর লিখতে গিয়ে তুমি খাতায় ৩টা ছক কেটে প্রথম ভাগে তোমার অভিজ্ঞতার ইচ্ছাগুলো লিখে ফেল।

নিজেকে জিজ্ঞাসা কর, কোন অভিজ্ঞতা তুমি মন থেকে চাও? তুমি কার সাথে থাকতে চাও? তোমার বাড়িতে কি কি চাই? কোন দেশগুলো ঘুরতে চাও?  কোন জায়গাগুলোতে যেতে চাও? কোন ধরনের পরিবার তুমি চাও? মনে যতঁ অভিজ্ঞতার কথা আশে সব লিখে রাখ।

দ্বিতীয় প্রশ্নটি হলঃ এই অভিজ্ঞতা অর্জন করার জন্য আমি কিভাবে নিজেকে তৈরি করতে পারি?


আমি বিশ্বাস করি, প্রাচীনকাল থেকেই মানুষ নিজের প্রয়োজন মেটাতে যা করা লাগে এবং তার জন্য নিজেকে যেভাবে প্রস্তুত করা লাগে, তা সে করতে পারে।

তোমার মনের এই অভিজ্ঞতা অর্জন করতে তোমাকে কি শিখতে হবে? কোন বিষয়ে জ্ঞান থাকতে হবে? কোন ভাষা শিখতে হবে? কোন যোগ্যতা তোমার থাকতে হবে? ইত্যাদি। খেয়াল করে দেখবে তুমি তোমার মনের ইচ্ছা পূরণ করতে যা করতে চাও, সেটাই তোমার লক্ষ্য এবং এই লক্ষ্য অর্জনেই তুমি মন থেকে তৃপ্ত হবে। তাই সমাজের বেঁধে দেয়া নিয়মে নিজেকে যোগ্য করবেনা। নিজের ইচ্ছাগুলো পূরণে নিজেকে যোগ্য করে তোল।

এখন তোমার কাছে দুইটা তালিকা আছে। একটা তোমার যে অভিজ্ঞতাগুলো অর্জনের ইচ্ছা সেটি, আর দ্বিতীয়টা, সেই অভিজ্ঞতা অর্জনে তোমাকে যা করতে হবে। এখন তোমাকে তৃতীয় প্রশ্নের উত্তর লিখতে হবে।

তৃতীয় প্রশ্নটি হলঃ আমার অভিজ্ঞতা আর যোগ্যতার মাধ্যমে আমি পৃথিবীকে কি দিতে পারবো?


এই প্রশ্নের উত্তরটা খুব গুরুত্বপূর্ণ কারন, Dalai Lama বলেছেন, “If you want to be happy, make other people happy”.

আমি বিশ্বাস করি, তুমি যখন নিজের লক্ষ্য নির্ধারণের ক্ষেত্রে তুমি যখন এই প্রশ্নগুলোর উত্তর লিখবে, শেষ প্রশ্নের উত্তর তোমাকে পরিপূর্ণতা দিবে। তুমি যদি কোন বিষয়ে দক্ষ হতে চাও, সেই দক্ষতা অর্জনের পর আরেকজনকে শেখাও। তুমি সুন্দর মিউজিক করতে পারো, এই যোগ্যতা দিয়ে মানুষের জন্য গান বানাও যা যুগ যুগ ধরে মানুষ মনে রাখবে। তৃতীয় প্রশ্নের উত্তরে তোমার যে তালিকা তৈরি হবে সেটি তোমাকে তোমার লক্ষ্য অর্জনের পরিপূর্ণতা অনুভব করাবে।

আমি মনে করি, আমার জীবনের লক্ষ্য কি হওয়া উচিৎ সেটি আমি ছাড়া আর কেউ সঠিকভাবে বলতে পারবে না এবং সেটি সম্ভবও না। তাই এই তিনটি প্রশ্নের উত্তর নিজেকে দাও আর সিদ্ধান্ত নাও তোমার জীবনের লক্ষ্য কি হওয়া উচিৎ এবং কেন হওয়া উচিৎ।

এই পদ্ধতি অনুসরনে তোমার উপকার হয়ে থাকলে কমেন্টে জানাতে ভুলবে না।

বাংলা ক্ষমা প্রার্থনা sms | Excuse Bangla message



এ পৃথিবীতে তারাই এক সাথে থাকেতে পারে....... যারা ক্ষমা করতে জানে... যারা ক্ষমা করতে জানে না, তারা এ পৃথিবীতে কোটি কোটি মনুষের ভিড়েও একা হয়ে থেকে যায়...
আমরা যদি নিজের প্রতি ভালবাসায় অন্ধ হয়ে নিজের সব ভুল ক্ষমা করে দিতে পারি,তাহলে অন্য কেউ কিছু ভুল করার পর ক্ষমা চাইলে তাকে ক্ষমা করতে পারব না কেন?
আমি হয়ত পারিনি তোমার জীবনটাকে আমার করে নিতে...কিন্তু তুমি তো পারতে আমার জীবনটাকে তোমার করে নিতে ???ভুলটা না হয় আমারি ছিলো... শুধরানোর অধিকার কি তোমার ছিলো না ???
আমি শব্দের মাধ্যমে বোঝাতে পারব না যে আমি সবকিছুর জন্যে কতটা দুঃখিত! মনে মনে আমার অনুতাপ আজ ব্যথার চেহারা নিয়েছে... এবার তো আমাকে ক্ষমা করে দাও!
আমি যা করেছি তা বোকামি ছিল, সবকিছু আগের মতন করে দেওয়ার ক্ষমতা থাকলে আমি এখুনি তা করে দিতাম, আমি মন থেকে কখনো চাই নি তোমাকে আঘাত করতে, তাই ভীষণ দুঃখিত...
আমি যা করেছি তা নিতান্তই কষ্ট আর রাগ থেকে করেছি...হয়ত ভুল করেছি,তাই আমি দুঃখিত...
আমি জানি না যে কি করলে আমাদের মধ্যে সবকিছু আবার আগের মতন হয়ে যাবে.. কিন্তু শুরুটা আমি করতে চাই \"আই আম সরি\" বলে.. আমি সত্যিই দুঃখিত..
আমি জানি তুমি কতটা রেগে আছ.. আর তোমার মনের মধ্যে এখন কি চলছে.. তাই আশা করি তুমিও বুঝতে পারছ যে এই সব কিছুর জন্যে আমি কতটা দুঃখিত.. ক্ষমা করে দাও প্লিজ
আমি জানি তোরা আজ আমার কারণে কষ্ট পেয়েছিস...রাগের মাথায় হয়তো বেশীই বলে ফেলেছি একটু...পারলে আমায় ক্ষমা করে দিস...
আমি জানি যে আমি যা করেছি তা বোকামি... আবেগের বশে আমি ভুল করে ফেলেছি... ইচ্ছা করে তোমায় আঘাত করতে চাই নি আমি.. এবারের মতন ক্ষমা করে দাও..
আমি জানি আমার বেস্ট ফ্রেণ্ড আমার উপর রাগ করে বেশীক্ষণ থাকতেই পারবে না...তাও বলছি,মন থেকে sorry!!
আমি চাই তোমায় হৃদয়ের গভীর থেকে ধন্যবাদ জানাতে, কিন্তু তোমার জন্যে আমার হৃদয়ে গভীরতার যে অন্ত নেই....
আমি খুব দুঃখিত "জেলাস" হওয়ার জন্যে..কিন্তু আমি যে তোমায় ভালবাসি...আর তাই তোমাকে হারাতে ভীষণ ভয় পাই..
আমি আমার ভুল থেকে এবং তোমার চোখের জল দেখে বুঝতে পেরেছি যে দোষটা আমারই ছিল... ক্ষমা করে দাও প্লিজ্...
আমার মিথ্যা তোমায় দিয়েছে অনেক কষ্ট, দেরিতে হলেও বুঝেছি আমি,বুঝেছি আমি স্পষ্ট.. কথা দিচ্ছি তোমায় এমন হবে না কখনো আর, এবারের মতন ক্ষমা করে দাও প্লিজ সোনা আমার.. একটু হাসো,অনেক হলো কান্নাকাটি রাগ, ভালো লাগছে না আমার যে আর ঝগড়া-ঝাঁটি-বিবাদ!
আমার চোখের জল তোমায় সেই ক্ষমা চাওয়ার বার্তাটুকু দিতে চাইছে যেটা আমার মন তোমাকে বোঝাতে পারছে না কোনভাবেই...প্লিজ ক্ষমা করে দাও...
আমার কথা না ভাবো,আমাদের এতদিনের সম্পর্কটার কথা ভেবে আজ আমায় ক্ষমা করে দাও...আর কখনও এমন হবে না...
আমার উপর রেগে থাকা তোমার প্রতিটি মিনিটের জন্যে তুমি নিজের জীবন থেকে খুশীর ৬০টি করে সেকেন্ড হারাচ্ছ...
আমাদের দুজনের মধ্যে তুমি সবসময়ই বেশি পরিনতবয়্স্কা আর বুদ্ধিমান...দয়া করে প্রতিবারের মতন এবার ক্ষমা করে দাও..
আচ্ছা তুমি যদি আমার মতন ভুলটা করতে,তাহলে এমন রেগে থাকলে তোমার ভালো লাগত? আমি বলছি তো অ্যাম সরি... ক্ষমা করে দাও প্লিজ?
“ ক্ষমাই যদি করতে না পারো, তবে তাকে ভালোবাসো কেন? ” ~_ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর “ শাস্তির চেয়ে ক্ষমা মহৎ ” ~~আব্রাহাম লিংকন
\"ক্ষমা\" এটি এমন একটি জিনিস যাকে সঠিক সময়ে না দিলে বা সঠিক সময়ে না চাইলে তুমি জীবনের মূল্যবান কিছু হারিয়ে ফেলবে..
\"আমি দুঃখিত\" আর \"আমায় বিশ্বাস করো\"
এই দুটি হল বহুল ব্যবহৃত দুটি কথা.. তুমি দুঃখিত সেটা আমায় বলে লাভ নেই যদি না তা তোমার কাজে প্রকাশ পায়.. আর তোমায় বিশ্বাস করতেও আমায় বোলো না,প্রমান করো যে আমি তোমায় বিশ্বাস করতে পারি.


tag : বাংলা অবহেলার sms ক্ষমা কবিতা, মন খারাপ sms, ক্ষমা চাওয়ার কবিতা, ভুলের sms, বিরহের sms, বিশ্বাস sms, কষ্টের মেসেজ

কষ্টের sms | love sms in bangla | বাংলা বিরহের এসএমএস

নিরবে ভিজে যায় চোখের পাতা,কষ্টের আঘাতে বেড়ে যায় বুকের ব্যথা,জানিনা এই ভাবে কাটাতে হবে কতদিন,আমার এই জীবনে কি আসবে না সূখের দিন

(২) কিছু কিছু কথা আছে বলতে পারিনা"এমন কিছু কষ্ট আছে সইতে পারিনা.এমন কিছু ফুল আছে তুলতে পারিনা.আর এমন1ta মনের মানুষ আছে ভূলতে পারিনা

(৩) এক বিন্দু জল যদি চোখ দিয়ে পড়ে,, সেই জলের ফোটা সুধু তোমার কথা বলে.. মনের কথা বুঝনা তুমি মুখে বলি তাই,, শত আঘাতের পরেও তোমায় ভালবেসে যাই..!!

(৪) মানুষ জীবনে ৬ বার হেরে যায়।(1)টাকার কাছে।(2)ভালবাসার কাছে।(3)সময়ের কাছে।(4)বিবেকের কাছে।(5)বন্ধুত্বের কাছে।(6)অবশেষে মরণের কাছে।

(৫) কাঁদবে কি তখন ? চির নিদ্রায় ঘুমাবো যখন.. মনে রাখবে কি তখন ? না ফেরার দেশে চলে যাবো যখন.. ।ডাকবে কি তখন ?? তোমার ডাকে সাড়া দিবনা যখন..।

(৬) অন্ধ ভালবাসার গন্ধ বেশি, নকল ভালবাসার সুবাস বেশি, সত্য প্রেমে রাগারাগি»নকল প্রেমে হাসাহাসি, বুঝবে যেদিন খুজবে তাকে অবহেলা হারালে যাকে।

(৭) আমার যদি একটা পৃথিবী থাকত তাহলে সেখানে যেয়ে চিৎকার করে কাঁদতাম, কেন যানো? তুমার দেওয়া স্মৃতি এত যন্রনা দেয় আমাকে যা সহিবার মত শক্তিআমার মাঝে নেই।

(৮) সপ্ন ভরা জীবনে দুঃখ যখন আসে,সবাই তখন পর হয়ে যায় থাকেনা আর পাশে।কষ্ট যখন মনের মাঝে দিয়ে যায় ব্যথা, সবাই তখন ভুলে যায় সম্পর্কের কথা।

(৯) আসবি তুই কবে ? পাগলি তুই ফিরে।যদি কখনো আসিস ফিরে, রাখব তোকে অনেক সুখে। তুই সুখে থাকবি, আর আমায় ভালোবাসবি।পাগলি_তুই_ফিরে_আয়।

(১০) কিছু কথা ভাবতে ভাবতে চোখে এল জল, জলকে বলিলাম তুই হঠাৎ কেন বাইরে এলি বল?জল বললো চোখটি তোমার সুখের নীড়,কি করে সইবো বলো এত দুঃখের ভীড়।

(১১) সত্যি কি তুমি আমাকে ভালোবাসো, না কি এটা শুধুই ভালোবাসা নামক অভিনয়। যদি তাই হয় তাহলে আমাকে আর জরিয় না তোমার জীবন নামক গোল চক্রে।যতই জটিল হবে তোমার অভিনয় ততই কষ্ট বাড়বে আমার।হয়ত কোন একদিন ক্ষমা করে দিব আমি তোমাকে, কিন্তু তুমি কি পারবে নিজেকে ক্ষমা করতে।হয়ত পারবে না, তাই বলছি ভালোবাসার নামে অভিনয় করো না।তুমি কি আজো অভিনয় করছ ?

(১২) ছায়া হয়ে থাকবে তুমি এ মনের আঙ্গিনায়।আর ভালোবাসবে আমায় তোমার চোখের অদ্ভুত মায়ায়।যদি ভালোবাসো আমায়,আমার এ হৃদয়টা দিয়ে দিব তোমায়। আমার হৃদয়টা রেখ যতনে, অতঃপর তোমায় নিয়ে হারিয়ে যার পূর্ণ চাদানী রাতের লগ্নে।...........!!!!!!

(১৩) আমার হৃদয় গহীনে তোমায় পেয়েছি কি সাধনে তুমি আমার কত যে আপন, বুঝাবো তা কেমনে।এই জীবনে হারাবার নেইতো কিছু আর, হারালো এই মন তোমাতে সুখের ঠিকানা নেই অজানা তুমি রয়েছো এ সাথে তুমি এলে রাঙালে মন দুচোখে জ্বেলে দিলে রঙিন স্বপন আড়ালে…হারালো যত বিস্বাদের ক্ষণ।

(১৪) হেমন্তে পাওয়া প্রেম তুমি,বলেছিলে কোন এক দিন রয়ে যাবে মোর মনের গহীনে।চিরকাল ভালোবেসে মোরে মাতাবে হেমন্তগন্ধে।মনের হেমন্তে বেঁচে থাকার সরণিতে এক ফোঁটা ভালোবাসা দিও মোরে।সেই ভালোবাসা দিয়ে হেমন্তের নিশিতে সাজিয়ে তোমারে আনব আপন আলয়ে।

(১৫) কালের খেয়ায় স্বপ্ন দিচ্ছে পারি দুঃখের নীল অস্তরাগে।তোমায় ভালোবেসে কন্ঠস্বর বেদনার ঝড় হয়ে আসে।অবিশ্বাসের মেঘে মোর কান্নাভেজা মুখ খানি ভাসে।মোর জীবন যেন বিদায় নেয় তোমার মৃত্যুর আগে।

(১৬) আমি আছি শেষের পথে আর তুমি সূচনায়, শেষের পথে দাঁড়িয়ে ভালোবাসি আমি শুধুই তোমায়।ভালো তোমায় বেসে একদিন যাব আধারে মিলিয়ে, আসব না আর আলোর পৃথিবীতে।তুমি থেকো অনেক সুখে।তুমি সুখে থাকলে আধারে মিলবে আলোর সন্ধান, এটাই হবে তোমার ভালাবাসার প্রতিদান।

(১৭) ফুলকুমারী তোমার পদ্ম আখির মায়ায় পরেছি।চন্দ্রকিরন রাতে মোর চিেওর গহীনে তোমার প্রতিকৃতি দেখে তোমায় ভালোবেসেছি।অবিনাশী কাল নিঃশঙ্ক চিেও তোমায় পাবার আশায় প্রহর গুনছি।ও নীলকন্ঠী তুমি ভালোবাসলে মোরে ঝরবে না নেএনীর।অন্তর্জ্বালা যাবে মুছে হিমান্তের নিশিতে।অতঃপর মোর জীবন নতুন ময়ূখ দেখবে।কলকন্ঠ পাখিরা নিশিদিন আমাদের খোঁজে যাবে।

(১৮) আমি আগ্নেয় গিরির মতো জ্বলে উঠতে পারি, গলেও যেতে পারি মমের মতো।নির্বিঘ্নে আমি হাসতে পারি, থাকে যদি বুকে হাজারও ক্ষত।আমি হতেও পারি কারো মনের মানুষ, হতেও পারি কারো প্রিয়জন।আমি পারি যতটা নির্মম হতে, হতে পারি ঠিক ততটাই দরদী।আমি সারাটা জীবন তোমাকে, আগলে রাখতে পারি এ বুকে, নির্মম হয়ে তেমনি করে, ভুলেও যেতে পারি তোমাকে।

(১৯) পাগলি তুই ফিরে আয়, আজো আছি তোর অপেক্ষায়।নিরবে দাঁড়িয়ে ঐ দূরে খোঁজে ফিরি শুধুই তোকে।দিশাহারা আজ এই মাতালহাওয়া, বইছে মোর বুকে।তবু তোর জন্য এ হৃদয়, অষ্টপ্রদীপ জ্বেলে রেখেছে।ফিরে তুই না এলে, অষ্টপ্রদীপ যে যাবে নিভে।

(২০) যখন নিরবে দূরে দাঁড়াও এসে,যেখানে পথ বেঁকেছে, তোমায় ছোঁতে চাওয়ার মূহুর্তরা।কে জানে, কি আবেশে দিশাহারা।আজ আমিও ছুটে যাই সেই গভীরে,আমিও ধেয়ে যাই কিনিবিঢ়ে। তুমি কি মরিচিকা,না ধ্রুবতারা তোমায় ছোঁতে চাওয়ার মূহুর্তরা।কে জানে, কি আবেশে দিশাহারা...নাকি শুধুই মরিচিকা_______??

(২১) মিথ্যে অভিনয় আর কত??? এ বার বদলে ফেলো নিজেকে।আজ পরাজয় মেনে নিয়ে বলছি আমি,জয়ের নিশান কিন্তু আমিই পেয়েছি কারন, মিথ্যে হলেও তো বলেছিলে তুমি ভালোবাসতে মোরে পৃথিবীর সবচেয়ে বেশী।

(২২) কে আমি??? কতটুকু জানো আমায়???কতটুকু জানলে বলা যায়,তুমি সবটুকু জেনেছ আমায়।মুখোশ পরে এক আমি আবার মুখোশের আড়ালে অন্য আমি।তোমার অজানা হাজারও আমির ভিতরে আজ লুকিয়ে আছি আমি,শুধুই আমি।তোমার কল্পমায়ায় এক আমি আর আমার বাস্তবতায় আরেক আমি।তাই বলছি আজ হাজারও আমির গভীরে হারিয়ে গেছি আমি।আর কখনো খুঁজে পাবে না তুমি।

(২৩) একফোটা চোখের জল ঝরার চেয়ে এক ফোটা রক্ত ঝরা অনেক ভালো।কারন,এক ফোটা রক্ত বের হতে হালকা ব্যথা লাগে আর এক ফোটা চোখের জল পুরো হৃদয় ছিড়ে বের হয়।

(২৪) প্রতিটা দিন প্রতিটা রাত কষ্টের জলে ভাসি আমি, তবুও এ হৃদয় প্রতিটা মূহুর্তে জানতে চায় কেমন আছো তুমি।হয়ত ভালো আছো,আর হয়ত বলছি কেন ভালোই তো আছো তুমি।মোরে ভুলে সুখ সমুদ্রে ডুবে আছো তুমি।মোরে যদি থাকবেই ভুলে তবে ভালো কেন বেসেছিলে, আর ভালোই যদি বেসে থাকো তবে মোরে ভুলে গেলে কেমন করে।আমি তো ভুলতে পারিনি তোমাকে, তোমার স্মৃতি গুলোকে।

(২৫) তুমি তো আমার অহর্নিশ ভালবাসা ছিলে, তোমার কাছে আমি দূর আকাশের তারা চাইনি, চাঁদ চাইনি; চাইনি আকাশের নীলটুকু।আমি জানি, তুমি তা আনতে পারবেনা।চাইনি কোন দামী গিফ্ট কারন প্রয়োজন ছিলনা আমার ওসবের।চেয়েছিলাম তোমার একটু ভালবাসা যা তোমার অবহেলার চাইতে অনেক কম।আমি তুষ্ট হতাম অতো টুকুতেই কিন্তুু তুমি বুঝতে পারোনি আমাকে কারন মন থেকে অ্যাকসেপ্ট করোনি কখনও এই আমাকে।

(২৬) এক চোখ কখনো আরেক চোখকে দেখেনা তবুও এক চোখের কিছু হলে আরেক চোখে অশ্রু না ঝড়িয়ে পারে না।

(২৭) সাঁঝের বেলায় বসে আছি বৃষ্টির অপেক্ষায়।মেঘ করেছে বৃষ্টি হবে এটাই আশা,আর এরই মধ্যে বেঁচে আছে কিছু ভালোবাসা।তাই শুধুই বসে বসে অপেক্ষা করা।

(২৮) আনন্দ = f(x,y,z) x = কষ্ট,y = দুঃখ,z = বেদনা দুঃখ = বেদনা আবার, বেদনা = কষ্টতাহলে, দুঃখ = কষ্ট = বেদনা অতএব আনন্দ - f(x,y,z) = 0

(২৯) মাঝেমাঝে মনে হয় যদি তোমাকে দেখাতে পারতাম কতটা ভালোবাসি তোমকে। যেদিকে তাকাই শুধু তোমার স্মৃতি,মনে পরে যায় ভালোবেসে ছিলাম কতটা শুধু তোমাকে। আধাঁরে ঘেরা আমার এই পৃথিবী আলো দিয়ে ভরিয়ে দিলে তুমি। আমার এক নতুন জীবনের সূচনা করলে। তখন মনে হতো সময়ের কাটা যদি থামিয়ে দিতে পারতাম তবে হয়ত সারা জীবন এমনই সুখ থাকতে পারতাম।.....

(৩০) অসহ্য যন্ত্রণা হচ্ছে,,, আমার চোখের দিকে তাকিয়ে দেখ...? যন্ত্রণা গুলো কেমন মুক্ত ভাবে ঝরে পরছে। আমি কাঁদছি - তুমি এটাই ভাবছো তো,,,? না, না, আমি কাঁদছিনা; কাঁদলে নোনা জল বের হতো। আমার চোখে যে বর্ষণ তুমি দেখছ, তার স্বাদ নোনা নয়; তিক্ততা। আর বর্ণহীনও নয়; একটু নীলাভ। যন্ত্রণা গুলো আমার মাঝে আর থাকতে চায় না। এ গুলো তো তোমারই দেওয়া,,, তাই তোমার কাছেই ফিরে যেতে চায় !!! পারবে কি এ গুলো গ্রহন করতে,,,??? প্রশ্নটা তোমার কাছে,,, উত্তরটা না হয় তোমারই কাছে থাকুক।

(৩১) সুখের আকাশটা আজ,রাতের মতো কালো। সাজানো স্বপ্ন গুলো হয়ে গেছে এলোমেলো।

(৩২) একদিন আমি আমার পথে হাঁটছিলাম, হঠাৎ তুমি এলে, আর হাঁত ধরে,: অচেনা পথে নিয়ে গেলে, তোমায় বিশ্বাস করে ছিলাম, কিন্তু , জানতাম না, মাঝ পথে একা ফেলে চলে যাবে। # Don't_tRy_plAy_wiTh_mE

(৩৩) তোমার সুখের জন্য....যদি তোমাকে ভুলে যেতে হয়, তাহলে আমি ভুলে যেতে রাজি আছি । ভুলতে হয়তো কোনদিনও পারবো না তবে ভুলে থাকার অভিনয় করতে পারবো..... # without_yoU_eVerYDay_iS_A_RaiNy_daY .

(৩৪) অন্য কারো হাতে তোমার সুখ আমানত দিও না, কারন সে হারিয়ে গেলে তোমার সুখকে আর তুমি খুজে পাবে না....!!!

(৩৫) দিনের সূর্য অস্তমিত হয়ে উদিত হয় রাতের চাঁদের যার আলো থাকলেও এর বিন্দু পরিমাণ আলোকপাত নেই রাতের কোন এক প্রহরীর উপর।হয়তো সে মনের মধ্যে রাতের নিঃশব্দতার রেখাপাত ঘটিয়ে নিরীহ অন্ধকারের মধ্যমনি হয়ে আছে।আলোর কোলাহল ছেরে সে আঁকড়ে ধরেছে নিমজ্জিত হওয়া কোন এক মুহুরতকে যা তাকে দুরে রেখেছে সেই সুপ্রসন্ন কোলাহল থেকে।

(৩৬) না চাইতে যা পাওয়া যায়,তা সব সময় মূল্যহীন।তেমনি করে আমিও তোমার জীবনে মূল্যহীন।কারন,তুমি তো চাওনি আমাকে।কিন্তু আমি চেয়েছি তোমাকে।আমার জীবনঅাত্মার গভীর প্রেম হয়তো তোমাকে পাওয়ার বাসনা করে ছিলো।তাই তুমি কখনো আমার জীবনে মূল্যহীন নও।

(৩৭) আমি থাকবো তোমার অপেক্ষায় গুচ্ছপাতার মতো বুনন করে, কথামালা উপহার দেব বলে। সন্ধ্যা প্রদীপের আলোর মতো, মিষ্টি আলো তোমার মনে ছড়াবো বলে। আমি থাকবো তোমার অপেক্ষায়, যেখানে তুমি তোমার শেষ কবিতার শিরোনাম রচনা করেছিলে। প্রকৃতির আদল অঙ্গে মেখে, তোমার জন্য অতি সাধের সাজ- সজ্জায় এই গোধূলি বেলায়, একটু উচ্চ ভালবাসা দেবার একাগ্রতায় ঠিক সেখানটায়, আমি থাকবো তোমার অপেক্ষায়। আসবে কি তুমি, আমার ভালবাসা দুহাত ভরে নেয়ার আশায়।

(৩৮) সৃষ্টি হবে অন্যরকম গল্প আজ, আলোর নিচে সাজাবো আমি, অন্ধকারের সাজ দেখে আবার আসেনা যেনো, তোমার চোখের পানি। হটাৎ করে দেখবে তুমি, হারিয়ে গেছি আমি।

(৩৯) কাউকে ভালোবাসলে বেশি কাছে যাবার চেষ্টা করতে নাই।তাতে করে কাছে যাবার আকুতি দেখে সে হয়তো দূরে চলে যেতে পারে ।কেননা মানুষ সোজা পথের চেয়ে বাকা পথে হাটতে আনন্দ পায় বেশি।কিন্তু সব কিছু হারিয়ে সোজা পথেই আসতে হয়।সেই সময়ে নতুন করে ভালোবাসার ইচ্ছা টা আর থাকে না।

(৪০) বাঁধিনি হৃদয় পিঞ্জরে রেখেছি মুক্ত করে।যাবি যদি দূরেই পাখি, যা রে উড়ে করবোনা মানা তোরে..।

(৪১) আকাশের ঐ মিটিমিটি তাঁরার সাথে কইবো কথা নাইবা তুমি এলে।তোমার স্মৃতির পরশ ভরা অশ্রু দিয়ে গাঁথবো মালা নাইবা তুমি এলে...।

(৪২) বেদনা মধুর হয়ে যায়, যদি তুমি দাও.......।মুখের কথাই হয় যে গান, যদি তুমি গাও.......!

(৪৩) অবুঝ বালিকা,ফেইজবুকে তোমার সাথে প্রথম পরিচয় থেকে কেমন যেন একটা ভাল লাগা কাজ করে। এর পর একে একে কেমন করে যেন তোমার উপর একটা নির্ভরশীল হয়ে পরলাম।সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ফেইজবুকে কথা বলা কখন কোথায় কী হল সবই যেন তোমাকে জানাতে হবে।তুমি কী বুঝ আমার জীবনে তুমি কতটা গুরুত্বপূর্ণ।তোমার নামটাও কখনো জানা হয়নি।জানতে চাইও না।আমি শুধু তোমাকে চাই।

(৪৪) শপনো ছিলো রাশি রাশি মিত্যা ভালোবাসা। তাইতো জানি তোমার জন্য চোখের জলে বাসা এতো ভালোবাসি তোরে বাসলিনা কেন বল।

(৪৫) বাড়িয়ে দাও তোমার হাত আমি তোমার হাতটা ধোরতে চাই & বাড়িয়ে দাও তোমার হাত তোমার হাতটি ধরে হাটতে চাই ।

(৪৬) হয়তো তুমি ও বাসবে ভালো, কিন্ত আমি থাকবো না শান্ত হয়ে ঘুমিয়ে যাবো, আর কোনদিন জাগবো না ভালোবাসার অজুহাতে, তোমায় কাছে ডাকবো না আর কোনোদিন তোমার পথে, দাঁডিয়ে আমি থাকবো না।

(৪৭) জানিনা কিভাবে তোমার দেখা পাবো , জানিনা কিভাবে তোমাকে কাছে পাবো , জানিনা কতটা আপন ভাবো তুমি আমায় । শুধু জানি এই অবুজ মনটা অনেক মিস করে তোমায়।

(৪৮) মানছি আমার ভুল হয়েছিল , তোমায় মুখ ফুটে কখোনোও ভালবাসার কথা বলতে পারিনি, তবে দোষ তো তোমারও কম ছিল না, একবারও আমার চোখের ভাষা পড়ার চেষ্টাও করোনি , নিরবতাকে না বুঝে ভেবেছো কখনও তোমায় ভালবাসিনি !!!

(৪৯) বৃষ্টিকে যদি ভালোবাসতাম হয়তো এতো জল উপহার পেতাম না, যত জল পেয়েছি তোমাকে ভালোবেসে। বুঝতে পারিনি, এত বেশি মেঘ ছিল তোমার আকাশে। সত্যিই বড় বোকা ছিলাম, আর আজও বোকাই রয়ে গেছি।


(৫০) আমি হয়তোবা তোর জন্য হাত কাটতে পারিনি,বাড়ি ছাড়তে পারিনি,কিন্তু আমি তোর জন্য প্রতিটা রাত,দিন চোখের জল ফেলতে পেরেছি।ভালবাসার যন্ত্রনা যে এতটা ভারী সেটা বুঝতে পারি নির্ঘুম রাতে।যখন একাকি জেগে থাকি। যে তুই আমাকে এতো ভালোবাসতি,আর সেই তুই আজ নিজেকে আড়ালকরে নিলি।সত্যি আমার এগুলো লেখতে খুব কষ্ট হচ্ছেরে,চোখের জলে সব ভিজে যাচ্ছে,।তোকে যে খুব ভালবাসিরে ।।

(৫১) বদলে গেছে অনেক কিছু, কিন্তু আমি আছি সেই আগেরই মতো। একটু কমেনি তোমার প্রতি আমার ভালোবাসা । সারা জীবন ভালোবেসে যাবো তোমায়।আমার পৃথিবীর বিরাট প্রান্তর তুমি। আমার কথা কি একটুও মনে পড়েনা তোমার ? জানি তোমারও মনে পড়ে । তবে কেনো থাকো দুরে।আগের মত কেউ আর কোন কাজে এখন জোড় করেনা । কারো মেসেজ দেখার জন্য এখন আর ভোরে ঘুম ভাংগে না।কেটে যায় দিন এখন একাকি । হারিয়ে ফেলেছি তোমাকে, তার থেকে বেশি হারিয়ে ফেলেছি নিজেকে।অনুভূতি গুলো শেয়ার করার মতো কেউ নেই।তোমার হাসিটা দেখবো বলে আজও আশায় আছি । এখোনো তোমার ফিরে আশার দিন গুনি,, যদি কখোনোও তুমি ফিরে অাসো ।

(৫২) জীবনটা অনেক অদ্ভুত।কিছু সুখ , কিছু দুঃখ, কিছু ভালবাসা এ নিয়েই জীবন ।তারপরেও কিছু কিছু মানুষ আছে তারা সবার থেকে অনেক ভীন্ন। তারা সবার সামনে খুব ভালো থাকে , কষ্ট গুলো কাউকে বুঝতে দেয় না ।তার পাশের অনেকেই ভাবে সে হয় তো খুব সুখী ।কিন্তু সে মানুষটি যে নিরবে কাঁদে তখন সে দুঃখ দেখার বা বোঝার মতো কেউ থাকে না । অাসলে সব কষ্ট সবাইকে দেখানো যায় না কিছু কিছু কষ্ট মনের মধ্যে লুকিয়ে থাকে । সেগুলো হয়তো তার একান্ত আপন মানুষটিও সারাজীবন পাশে থেকে বুঝতে পারে না ।

(৫৩) মিতু আজ অনেক বদলে গেছি আমি । সত্যি বলছি এখন আর তোমাকে ভালবাসিনা, তোমাকে ভেবে মিছে মিছি আর কাঁদিনা। তুমিই যখন আমাকে ভালোবাসোনা তখন কেনো তোমার জন্য অশ্রু ঝড়াবো দুনয়ন হতে। সত্যি বলছি ভালবাসবো এখন শুধু আমাকে, যতো কবিতা লিখেছিলাম তোমার জন্য সব ছিড়ে ফেলেছি ডায়রীর পাতা হতে। এখন তোমার জন্য রাত জেগে আর কবিতা লিখিনা, এখন আমি রাত জাগি কষ্ট ভোলার সুত্র নিয়ে। ভালবাসার দাবি নিয়ে কখোনোও ছুটবোনা আর তোমার পিছু ধরে। শুধু দোয়া করো তোমাকে যেনো ভুলে থাকতে পারি ।

(৫৪) যতো ভালবাসা পেয়েছি তোমার কাছ থেকে ; দুষ্টু এই মন চায় আরো বেশি পেতে ; কি জানি তোমার মধ্যে কি আছে ; কেনো যে এ মন চায় তোমাকে আরো বেশি করে কাছে পেতে .!!

(৫৫) আবার ফিরে আসো অন্তত এক ঘন্টার জন্য...।নয়তো এক মিনিটের জন্য...অন্তত একটা মুহূর্তের জন্য...।বলবো না পাশে থাকতে ।বলবো না আর একটি বার নতুন করে ভালোবাসতে...।শুধু বলবো, তোমার দেয়া স্মৃতি গুলো নিয়ে যাও ।

(৫৬) ভেবেছিলাম তুমি আসবে! ভোরের কুয়াশায় হাটবো তোমার হাতটি ধরে।কিন্তু তুমি এলেনা ভেবে ছিলাম পড়ন্ত বিকেলে হয়তো গোধূলি লগ্নে তোমার দেখা পাবো! তখনো তুমি এলেনা ভেবে ছিলাম সন্ধ্যা তারাদের মাঝে তোমায় খুঁজে পাবো! অবশেষে খুজে পেলাম ঠিকই,কিন্তু তুমি ছিলো ঐ দূর আকাশে । আমার দিকে ফিরেও তাকালেনা। ভাবনা আমার ভাবনাই রয়ে গেলো বাস্তব আর হলোনা......!!

(৫৭) খাচার পাখি উরে গেলে যেমন আসে না আর ফিরে| সুখ হাড়ীয়ে গেলে তেমন আসেনা আর ঘুরে|র্ুখ যেন এক উরন্ত পাখি বাসা বাঁধেনা জীবন থেকে চলে গেলে ফির আসেনা | দুঃখ যেন পোষা পাখি পিছন ছারেনা।

(৫৮) জীবন তো বহমান নদী থেমে থাকেনা, অনেক কিছু আশা থাকলেও পাওয়া হয়না| আশা গুলো পরে থাকে শুধুই সৃতি হয়, জীবনের অনেক কিছু যায় হাড়িয়ে|

(৫৯) জানি ফিরবেনা এই মনের নিড়ে তবুও অপেক্ষায় থাকবো সারা জীবন ধরে ।

(৬০) মিছে আশা করে লাভ কি?সত্যি এটাই যে তুমি কখনো আমার ছিলে না আর কখনো হবেও না।ভাবনায় এসে দূর থেকে চলে যাও আমাকে কাঁদিয়ে....।আমার কি অপরাধ ছিল? তোমাকে ভালবাসাটাই কি আমার অপরাধ ছিল....?যদি তাই হয়, তবে ক্ষমা করে দিও !

(৬১) আজ স্মৃতির পাতা উল্টে দেখলাম কত মানুষ জীবন থেকে হারিয়ে গেছে।কত চেনা মানুষ , অচেনা হয়ে গেছে হয়তো কোন এক দিন ,আমিও অচেনা হয়ে যাবো এই পৃথিবী থেকে !!

(৬২) আজ নিজে নিজে নীরবে কাঁদছি, যে কান্না হয়তো মরণ হলে শেষ হবে ।তবে সত্য বলতে কি জানো আমি তোমাকে আজও ঠিক আগের মতই ভালোবাসি ।

(৬৩) আমি জানি তুমি ভালো নাই, তুমি ভালো থাকতে পারো না কারণ,আমি তোমাকে ক্ষমা করে দিলেও আমার প্রতিটা দীর্ঘশ্বাস আর একেক ফোঁটা চোখের পানি তোমাকে কখনোই ক্ষমা করবে না এটা আমার অভিশাপ নাহ, এটা প্রকৃতির হিসাব।কাউকে কষ্ট দিয়ে কেউ ভালো থাকতে পারে না ।

(৬৪) জানি না আজ আমার কি হয়েছে, শূন্য মনের গহীন অতলে এক ঝড় উঠেছে !ভিষন ভাবে তোমাকে মনে পড়ছে, তোমার কথা ভাবতেই জল এলো দু'চোখের কোনে !কেমনে বলবো আমি-একটু খানি ভালোবাসি তোমায় ! সেই সাধ্য দেওয়া হয়নি আমায় !তবুও কেনো জানি তোমাকে অনেক ভালোবাসি !!

(৬৫) অতিথি পাখি হয়ে কারো জীবনে যেওনা হয়তো তুমি তাকে কিছুদিন হাসাবে॥কিন্তু তুমি যখন চলে যাবে আপন ঠিকানায়, সে সারা জীবন কাঁদবে শুধু তোমার বেদনায়।

(৬৬) তুমি একদিন আমার মত কষ্ট পাবে তুমিও আমার মত চোখের জল ফেলবে আর তুমি আমার কথা ভাববে কবে জানো? যে দিন তুমি আমার মত সত্যি ভালোবাসবে।

(৬৭) অনেক ভালোবেসে ছিলাম তোমাকে কিন্তু তুমি তা কখনো বুঝোনি বুঝবে কি করে ???তুমি তো আমাকে ভালোবাসনি।ভালোবাসা বুঝতে যদি আমাকে ভালোবাসতে।হয়তো একদিন ভালোবাসা কি বুঝবে, সে দিন নীরবে কাঁদবে।আমি আজও ভালোবাসি তোমায় । আর সারাজীবন এভাবেই ভালোবাসবো !!!

(৬৮) জীবনের শুরুতে কষ্টের সূচনা,হাজারো ব্যাথা নিয়ে আমার রচনা,যন্ত্রনার অন্ধ ঘরে নির্মম এক পরিহাস.চোখের জল আর বেদনা নিয়ে আমার জীবনের ইতিহাস।

(৬৯) তোমার মাঝে আমার সমস্ত সুখ লুকিয়ে ছিল !!!তাই তোমাকে চেয়েছিলাম সুখ পাবো বলে ! কিন্তু তুমি যা দিয়েছ সুখের বদলে তার কোন তুলনা হয় না, আসলেই তা অমুল্য এক কষ্ট আর যন্ত্রনা তোমার দেয়া কষ্ট আর যন্ত্রনা নিয়ে এখনো বেঁচে আছি সুখ পাবো বলে আমার সুখ মানেই তুমি !!

(৭০) মন চায়, বিন্দু বিন্দু সুখের জলকণা দিয়ে, তোমায় ভিজিয়ে দিতে, আর তোমার কষ্টের পাথরগুলো শান্ত নদীতে ফেলে দিতে মন চায়, অবিরাম বৃষ্টির পথ ধরে হাটতে হাটতে, হারিয়ে যাই অজানা কোনো দেশে আর সেখানে নতুন ভুবন গড়ে তুলতে মন চায় ।শেষ জীবনের অন্তিম কালে পাশে থাকবে তুমি, আমার পানে চেয়ে।

(৭১) মাঝে মাঝে খুব ইচ্ছে করে আমার নির্ঘুম রাতের কিছু মূহুর্ত তোমাকে দিয়ে দেই!! নির্ঘুম রাতের যন্ত্রনা একটু যদি তাতে বুঝতে তুমি!! জানি, একটা ক্ষন সহ্য করার ক্ষমতা নেই তোমার। এ যে ভীষন কষ্ট!! পারবে না সইতে তুমি!! কেন আমার আকুতি তোমাকে ছুতে পারেনা?? কেন এত দূরে তুমি ???

(৭২) ভুল তোমার ও ছিলো, সেটা তুমি বুঝনি, রাগ আমার ও ছিলো, কিন্তু আমি দেখাইনি. ভুলে আমি ও যেতে পারতাম, কিন্তু চেষ্টা করিনি, কারন আমি তো ভুলার জন্য তোমায় ভালোবাসিনি।

(৭৩) কাউকে একবার মন দিয়ে দিলে, সেটা আর ফেরত নেয়া যায় না.!! কারো জন্য একবার ভালোবাসা সৃষ্টি হয়ে গেলে, সেটা আর কখনো ধ্বংস করা যায় না...!! সবকিছুই সয়ে যেতে হয় শুধু নীরবে, কিছুই করার থাকে না !!!

(৭৪) জানিনা এই অবুজ হৃদয় কার অপেক্ষাই আছে........ জানিনা এই সরল মনে কার জায়গা হবে......... শুধু জানি হৃদয়ের ঘরে যাকে রাখব......... সারা জীবন তাকেই ভালবাসবো !!!!

(৭৫) আমি সত্যিই ব্যার্থ !!! কারণ আমি কখনোই তোমাকে বুঝাতে পারি নাই "আমি তোমাকে কতটা ভালবাসি"..

(৭৬) সবার জীবনেই তো প্রেম আসে। কেউ হয়তো ভালোবাসার মানুষটিকে নিয়ে স্বপ্ন দেখে জীবন কাটিয়ে দেয়। আবার কেউ কেউ বাস্তব জীবনেই ভালোবাসার মানুষটির উপস্থিতি উপভোগ করার সৌভাগ্য অর্জন করে !!!!!

(৭৭) ভালবাসা বদলায় না বদলে যায় মানুষগুলো, অনুভূতিরা হারায় না হারিয়ে যায় সময়গুলো ।

bangla valobashar sms love sms miss u message bangla koster sms

bangla valobashar sms love sms miss u message bangla koster sms

Dana mele pakhi jokhon apon nire ure. Sada kalo meghera jokhon nill akashe ghure. Jokhon ami boshe thaki ekla obosore. 2khon sudu sritir pathai 2my mone pore... I miss u JaN...

Ovimane bondhu amar,R dure theko na,, Ajo achi 2mar asai, Akbar fire dakho na,, Ato vabi 2mai niye, Tobu kano asho na,, Ajo achi poth cheye, 2mi ki R ashbe na?.. . . . . . . . . . . .I miss U..!


♣Dukkho ace bole sukher eto dam. Rat ace bole diner eto sunam. Surjo ace bole chader eto durnam. 2make Miss kore bolei2, SMS ta dilam...I Miss U♣

valobashar bangla sms love miss sms miss u sms bangla koster sms

Nirobe vabi ami 2mar kotha. 2mi ki vabo amar kotha? Amake ki 2mi rekheco mone, na giyeco vule? But ami 2make miss kori sob somoy. I Miss you....

Ovimani Akashe 2mar chobi ekeche, Hridoyer gohine 2make tenechi. kolponar Aloke 2mak chuye dekechI, nirobe 2mak khub mISs korchI.

Batase hate 1ta Citi, Patie dilam aj. Ami ace onk dure, songe hajar kaj. Batas 2i 1tibar Janie dio take. Ami take misS korci, hajar kajer fake.

*;,,;*Jodi chad hotam, sa,ra rat pahara ditam. >Jodi jol hotam, sara deho vijiye ditam. >Jodi mon hotam, tomar mon k chupi chupi boltam.... ...I miss u..

Khup dure haria gele ektu kujhbe ki amy,onak din dekha na hole ak2 vabbe ki amy,ar kono din fire na asle mone rakhbe ki amy.khup miss korci 2may....

valobashar bangla sms love miss sms miss u sms bangla koster sms


Ei Prithibite protiti manusey full life A keu ke na keu k miss kore..temni amio amar full life A 2oke miss korci and korbo,i miss U bondhu..

0 meri Dost.Andheri ki Ghost"."Peyaar ki Tost"."Murgi ki Rost"."Bina Light ki Lamp Post.Missing u all Most.

Akash vora tarar majhe chadta mucki hashe,dekhci ami 1kai bondhu neito 2my pashe,alo vora chader oi nil jocho nay,khup beshi miss bondhu korci 2may..

Kar Basi Vul Chilo Janina.. Hoyto Tomar,, Noy To Amar.. Ekakitto R Nirobota kSakkhi Rekhe Etotuku Bolte Pari Ajo Onek Miss kori Tomay...

Tumi Amar Coker Moni, Nodir Buker Dew, Tumi Chara Moner Betha, Bujbe Na R Kew. Tumi Amar Nil Akasher Purnimar Chad, Tumar Kotha Vabi Ami, sara din rat.

Amr Nirgum Rat Kate Tmr Opekkhay,Vasahin Jibon Kate Nistobdo Nirjolotay,Songihin Poth Choli Ekaki Niralay,Kothay Aso 2mi Kon Dur Ojanay.

valobashar bangla sms love miss sms miss u sms bangla koster sms


Nodi sukhiye jete pare,But sagor noy. Prodip nive jete pare,But surjo noy. Pata jhore jete pare,But gach noy. 2mi vule jete paro,But ami noy. I miss u..!

Akti mone akti prane bedhe rekhe chilem bondhu tomare,,,vebe chilam amader gibonta hoito avabe katbe shara jibon,ke janito manus manuske volte ak second shomoi lagena,,,tumi amake vole geleo ami volini tomai,,,i miss you

sarthoporer moto chole geso, kichu na bole amay, ajo ami poth cheye bose achi tumar ashai, janina ki vule chole geso amay chere, ajo ami tumay miss kori protikhone,

Tumai Miss Kora Mane Chokher Jol Jhorano. Tumai Miss Kora Mane Amar Obuj Moner Kanna. Tumai Miss Kora Mane Shobar Majhe Aamar Eka Hoye Jaowa. I Miss U..

Dukkho ache bole suker ato dam.rat ache bole diner ato sunam. surjo ache bole chader ato durnam R tumai miss kore bolei SMS ta dilam!"I Miss You"

Jokhon rate chad uthe, tokhon 2my khub mone pore... Tokhon chader sathe kotha boli. Jokhon surjo uthe, tokhon tomay khub mone pore... Tokhon 2mr chobir sathe kotha boli. Sotti 2mi amr fulkoli. ,,.>i miss u<.,,