কম্পিউটার (Computer) গ্রাফিক্স কি, কিভাবে কাজ করে ? বিস্তারিত জেনে নিন

তথ্য প্রযুক্তির সবচেয়ে বড় চমক হচ্ছে কম্পিউটার। আর কম্পিউটারের একটি চমক হচ্ছে — কম্পিউটার গ্রাফিক্স (Computer Graphics)। সাধারণত কাউকে যদি প্রশ্ন করেন যে কম্পিউটার গ্রাফিক্স কি তাহলে এক এক জনের কাছ থেকে এক এক রকম উত্তর পাবেন আপনি। কেউ বলবে কম্পিউটারের মনিটরের পর্দায় আমরা যা-ই দেখতে পাই সেটাই হচ্ছে কম্পিউটার গ্রাফিক্স, কেউ হয়তো বলবে গেমস খেলার সময় কম্পিউটারে যে থ্রিডি ছবি আমাদেরকে উপহার দেয় সেটাই হচ্ছে কম্পিউটার গ্রাফিক্স, আবার কেউ হয়তো আপনাকে উল্টো প্রশ্ন করতে পারে যে ভাই আপনিই বলে দেন।

কম্পিউটার গ্রাফিক্স সত্যিকারের কোন গ্রাফিক্স নয়, বরং 1 বা 0 এর সমন্বয়, বা ডিজিটাল তথ্য!

জ্বী আজ টেকহাবসে বিস্তারিত আলোচনা করতে এসেছি কম্পিউটার গ্রাফিক্সের খুঁটিনাটি নিয়ে। বিষয়টিকে সহজ করে বলি, আগেরকার সময়ে যখন কম্পিউটার ছিলো না তখন কোনো চিত্রশিল্পী তার চিত্রকর্মগুলো একটি কাগজে বা ক্যানভাসে রং এবং বিভিন্ন উপাদানের সাহায্যে আঁকতেন। ঠিক তেমনি আগেরকার দিনের ফ্যাশন ডিজাইনার, আর্কিটেকচার বা যেকোনো বিষয়ের বিজ্ঞানীরা এই কাগজ, রং তুলির সাহায্যে তাদের প্রোজেক্টগুলোকে উপস্থাপন করতেন। আর বর্তমান আধুনিক যুগে এসে এই ক্যানভাসের পরিবর্তনে এখন ব্যবহৃত হচ্ছে কম্পিউটার বা আল্টিমেইটলি কম্পিউটার গ্রাফিক্স।

হ্যাঁ বর্তমান যুগের আর্কিটেকচারার, ওয়েব ডিজাইনার, ফ্যাশন স্টুডেন্ট কিংবা বিজ্ঞানীদেরকে কম্পিউটার গ্রাফিক্স তাদের প্রোজেক্টগুলো বাস্তবায়নে সাহায্য করে আসছে। এখনো মাথায় বিষয়টি ঢোকে নি? তাহলে চলুন একদম শুরু থেকেই সবকিছু শুরু করছি!

কম্পিউটার গ্রাফিক্স কি?
কম্পিউটার গ্রাফিক্স হচ্ছে কম্পিউটার স্ক্রিণে কোনো কিছু আঁকাকে বুঝায়। এটা হচ্ছে কম্পিউটার গ্রাফিক্সের আভিধানিক অর্থ। আপনি যদি কোনো পেপারে কোন কিছু আঁকেন (যেমন কোনো মানুষের ছবি বা ঘরের ছবি) তাহলে সেটা হবে একটি এ্যানালগ ইনফরমেশন। আর একই জিনিস যদি আপনি কম্পিউটার স্ক্রিণে নিয়ে আসেন তখনই সেটা হয়ে যাবে একটি ডিজিটাল ইনফরমেশন — আর সেটাই হচ্ছে কম্পিউটার গ্রাফিক্স।


Vector illustration Credit: By Via

এ্যানালগ ইনফরমেশন বা কাগজে কলমে কোনো কিছু আঁকলে পরবর্তীতে সেটা পরিবর্তন করা বেশ ঝামেলার কাজ। যেমন আপনি যদি আপনার হাই সিক্রেট সাইন্স প্রজেক্টের কার্যাবলির খসড়া যদি কোনো পেপারে আঁকতে যান তাহলে হয়তো পেন্সিল দিয়ে আপনি আঁকতে পারেন, পরবর্তীতে ভূল হলে রাবার দিয়ে সেটা মুছে দিলেন। কিন্তু যারা পেন্সিল ব্যবহার করেন না বা যেসকল জায়গায় পেন্সিলের আঁকা ছবি গ্রহণযোগ্য হয় না সেক্ষেত্রে একটু ছোটখাট ভূল হলেই পুনরায় নতুন করে আঁকতে হয়। আবার আপনি যদি তৈলচিত্র ব্যবহার করে কোনো প্রজেক্ট আঁকলেন কিন্তু শেষে গিয়ে যদি প্রয়োজনে কোনো রং কে পরিবর্তন করতে হয় তখন কি করবেন? আবারো সেই প্রথম থেকেই শুরু করতে হয়।

কিন্তু কম্পিউটার গ্রাফিক্সে এই সকল ঝামেলা নেই। সঠিক ভাবে ব্যবহার করতে জানলে কম্পিউটার গ্রাফিক্সে আঁকা যেকোনো কিছুর প্রত্যেকটি ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অংশ পরবর্তীতে পরিবর্তন করা যায়। তাই বর্তমানে ইতিমধ্যেই আর্স্টিট, ডিজাইনার এবং আর্কিটেকচাররা তাদের প্রজেক্টগুলোকে কম্পিউটারের সাহায্যে সুবিধাজনক উপায়ে তৈরি করে নিতে পারছেন।


 
তাছাড়া অ্যানালগ এবং ডিজিটাল প্রযুক্তি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে, এই আর্টিকেলটি চেক করতে পারেন!

কম্পিউটার গ্রাফিক্সের প্রকারভেদ
সকল কম্পিউটার আর্ট হচ্ছে ডিজিটাল। তবে একটি কম্পিউটার স্ক্রিণে ডিজিটাল ইমেজ আঁকার দুটি পদ্ধতি বা উপায় রয়েছে। একটি হচ্ছে — রাস্টার গ্রাফিক্স (Raster Graphics) এবং অপরটি হচ্ছে ভেক্টর গ্রাফিক্স (Vector Graphics)। সাধারণ কম্পিউটার গ্রাফিক্স প্রোগ্রামগুলো যেমন মাইক্রোসফট পেইন্ট (Microsoft Paint) এবং পেইন্টশপ প্রো (PaintShop Pro) হচ্ছে রাস্টার গ্রাফিক্সের উপর ভিত্তি করে নির্মাণ করা হয়েছে এবং এই প্রোগ্রামগুলো এই রাস্টার গ্রাফিক্স পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকে। অন্যদিকে আরো উচ্চমানে কম্পিউটার গ্রাফিক্স প্রোগ্রাম যেমনঃ কোরেল ড্র (CorelDRAW), অটো ক্যাড (AutoCAD), এবং অ্যাডোবি ইলাস্ট্রেটর (Adobe Illustrator) — এরা ভেক্টর গ্রাফিক্স ব্যবহার করে থাকে।

চলুন, এবার রাস্টার গ্রাফিক্স এবং ভেক্টর গ্রাফিক্সের মধ্যের বেসিক বিষয়গুলো জেনে নেওয়া যাক!

রাস্টার গ্রাফিক্স
আপনার কম্পিউটার স্ক্রিণের একদম কাছে এসে একটু নিবিড় ভাবে লক্ষ্য করুন। নিবিড় ভাবে কিছুক্ষণ তাকিয়ে থাকলে কম্পিউটার পর্দায় ছবি আর ওর্য়াডগুলোকে দেখবেন অনেকগুলো ছোট এবং ক্ষুদ্রকৃতির কালার ডট বা স্কোয়ার দিয়ে সাজানো হয়েছে। এগুলো পিক্সেল (pixels) বলে। অধিকাংশ সিম্পল কম্পিউটার গ্রাফিক্স ইমেজগুলো এই পিক্সেলের সাহায্যেই তৈরি করা হয়ে থাকে, যেমনটি অনেকগুলো ইট মিলে একটি দেয়ার তৈরি করা হয়।

একদম শুরুর দিকের কম্পিউটার স্ক্রিণগুলো ২০ শতাব্দির মাঝামাঝিতে নিমার্ণ করা হয়েছিলো। এগুলো তখন টেলিভিশনের মতোই কাজ করতো। ইলেক্ট্রন বিমগুলোকে ক্রমাগতভাবে স্ক্যানিং করে উপর-নিচ-ডানে-বামে করে একটি ইলেক্ট্রনিক পেইন্টব্রাশের মতো করে তখনকার মনিটারগুলোতে মুভিং পিকচার আনা হয়েছিলো। এই পদ্ধতিতে কোনো ছবি বানানো হলে তাকে বলা রাস্টার স্ক্যানিং (Raster Scanning) এবং এর জন্যই পিক্সেলের সাহায্যে কম্পিউটার স্ক্রিণে কোনো ছবি বানানো হলে তাকে বলা হয় — রাস্টার গ্রাফিক্স।

বিটম্যাপস


কম্পিউটারের বাইনারি (Binary) শব্দটির কথা আপনি নিশ্চয় আগে শুনেছেন। বাইনারি সংখ্যার মাধ্যমেই কম্পিউটার তার যাবতীয় কাজ নির্বাহ করে থাকে। যেমন ডেসিমাল নাম্বারগুলোকে (১,২,৩,৪……..ইত্যাদি) কম্পিউটার সহজ ভাবে নিজের ভাষায় মাত্র দুটি অক্ষরে ট্রান্সফর্ম করে নিয়ে তারপর কাজ করে। এই দুটি অক্ষর হচ্ছে শূন্য (০) এবং এক (১)। তাই আপনার কাছে ৫৬৭৮ নাম্বারটি কম্পিউটার বাইনারি ভাষায় ১০১১০০০১০১১১০ হবে। ধরুণ আপনি একটি কম্পিউটার, এবং আপনার পর্দা কেউ সাদা কালো রংয়ের একটি ছবি আঁকলো। এবার আপনি আপনার বাইনারি সংখ্যাগুলোকে এখানে প্রয়োগ করে এই ড্রয়িংয়ের উপাদানগুলোকে মনে রাখবেন। যেমন জিরো অক্ষরটি ব্যবহার করে ছবিটির সাদা অংশটুকুকে মনে রাখলেন এবং ওয়ান অক্ষরটি ব্যবহার করে ছবিটির কালো অংশটুকুকে মনে রাখলেন।

Binary Digits থেকে Bit শব্দটি এসেছে এবং Bits থেকে Bitmaps এসেছে!
এভাবেই একটি পূর্ণাঙ্গ আকৃতির ছবিকে কম্পিউটার এই বাইনারি ভাষায় মনে রাখে। কম্পিউটারের কাছে ছবি কিন্তু কোনো ছবি না, তার কাছে এটা শুধুমাত্র একটি বাইনারি সংখ্যার সমাবেশ মাত্র। যেমন ৮০০ x ৬০০ রেজুলেশনের একটি ছবি কম্পিউটারের কাছে ৮০০ পিক্সেলের এবং ৬০০ পিক্সেলের সমন্নয়ে ৪৮০,০০০ জিরো এবং ওয়ানের সমষ্টি হবে। এইভাবে একটি ছবিকে কম্পিউটার তার বাইনারি ডিজিট মনে রাখার সিস্টেমকে বিটম্যাপস (Bitmaps) বলে।

অধিক রংয়ের ছবি কম্পিউটারে স্টোর করার জন্য চাই অধিক পিক্সেলের মানে অধিক বিটস মেমোরি। আর এজন্যই একটি একই সাইজের সাদাকালো ছবির থেকে একটি রঙ্গিন ছবির সাইজ ভিন্ন হয়ে থাকে!

রাস্টার গ্রাফিক্স হচ্ছে খুব সহজে ব্যবহারযোগ্য একটি গ্রাফিক্স। আর তাই অধিকাংশ প্রোগ্রামই এই গ্রাফিক্স সিস্টেম ব্যবহার করে থাকে। ধরুণ আপনি আপনার কম্পিউটার স্ক্রিণে একটি পিক্সেল ছবি আকঁলেন এবং মাউস বাটনে ক্লিক করে ছবিকে mirror বা ফ্লিপ করে দিলেন আর সাথে সাথে ছবিটি ফ্লিপ হয়ে গেল। এইটি কম্পিউটার করছে তার পিক্সেলের সাজানোর অর্ডারকে উল্টো করে দিয়ে, অর্থাৎ জিরো এবং ওয়ানকে তাদের ক্রমান্নয় থেকে পাল্টে দিয়ে। আবার আপনি যদি কোনো ছবিকে দ্বিগুণ আকারে বড় করে নেন তাহলে কম্পিউটারও আপনার সাথে পিক্সেলগুলোর দ্বিগুণ হারে বৃদ্ধি করে দেয়। মানে ১০১১০ পিক্সেলের ছবি দ্বিগুণ করতে কম্পিউটার এটাকে ১১০০১১১১০০ করে নেবে। কিন্তু একই সাথে ইমেজটির কোয়ালিটি কিন্তু দ্বিগুণ হারে বাড়বে না। আর এটাই রাস্টার গ্রাফিক্সের একটি দুর্বলতা। আর তাই আপনি আপনার মোবাইলের ক্যামেরার ছবিকে যত বড় করতে থাকবেন ছবিটি তত ঘোলা আর অপরিস্কার হতে থাকবে। আরেকটি দুর্বলতা হচ্ছে এই রাস্টার গ্রাফিক্সে কম মেমোরি থাকে।

একটি ডিটেইল ছবিতে ১৬ মিলিয়ন কালারস থাকতে পারে, যেটায় প্রতি পিক্সেলে ২৪ বিটস এবং একটি বেসিক সাদা-কালো ইমেজের থেকে ২৪ গুণ বেশি মেমোরির প্রয়োজন হবে। নিজেই ক্যালকুলেশন করে দেখুন যে একটি 1024 x 768 মনিটরের সম্পূর্ণটা একটি ইমেজ দিয়ে পরিপূর্ণ করতে চাইলে সেটায় যদি প্রতি পিক্সেলে ২৪ বিটস এর দরকার হয় তাহলে সেই ইমেজের টোটাল সাইজ গিয়ে দাড়াবে ২.৫ মেগাবাইট।

রেজুলেশন
এবার আসি রেজুলেশন এর ব্যাপারে। রেজুলেশন কি? — আপনারা কম্পিউটার পর্দায় ভালো মানের ছবির জন্য উন্নত রেজুলেশন ব্যবহার করে থাকেন। আবার আমরা যারা গেমার রয়েছি তারা নতুন রিলিজকৃত গেমসগুলো আমাদের পুরোনো কম্পিউটারে ভালো মতো খেলার জন্য যথাসম্ভব কম রেজুলেশন দিয়ে খেলে থাকি, গেমের রেজুলেশন যত হাই দিতে থাকবেন গেমের ওভারঅল কোয়ালিটি বৃদ্ধি পেতে থাকবে এবং একই সাথে তা আপনার কম্পিউটারকে স্লো করে দিতে থাকবে। তো আসলে রেজুলেশন কি?
রেজুলেশন
একটি ইমেজে বা একটি কম্পিউটার স্ক্রিণের পিক্সেলের সর্বোচ্চ নাম্বারকেই রেজুলেশন (Resolution) বলে। যেমন অতীতের কমোডর পিইটি (Commodore PET) কম্পিউটারের রেজুলেশন ছিলো আল্ট্রা-লো কোয়ালিটির। সেখানে ২৫টি লাইনে ৮০টি ক্যারেক্টার প্রদর্শন করতে পারতো, এর মাধ্যমে পর্দায় সবোর্চ্চ ২০০০ লেটার, নাম্বার বা পাঙ্কচুয়েশন মার্ক প্রদর্শন করতে পারতো। আর প্রতিটি ক্যারেক্টার ৮ x ৮ স্কোয়ার পিক্সেলের উপর নির্মিত হওয়ায় কমোডর পিইটি কম্পিউটারটির স্ক্রিণের রেজুলেশন ছিলো 640 x 200 বা 128,000 পিক্সেলস।
যে ল্যাপটপে বসে বসে আমি এই পোষ্টটি টাইপ করছি সেটার রেজুলেশন হচ্ছে 1280 x 800 বা 1.024 মেগাপিক্সেল, যা আগের কমোডর পিইটি কম্পিউটার থেকে ৭/৮ গুণ বেশি ডিটেইলস বহন করছে। উল্লেখ্য যে ওয়ান মিলিয়ন পিক্সেল মিলে এক মেগাপিক্সেল হয়। আবার অন্যদিকে ৭ মেগাপিক্সেলের একটি ডিজিটাল ক্যামেরার ছবিগুলো আমার এই ল্যাপটপের থেকে ৭ গুণ বেশি ডিটেইলযুক্ত হবে।

অ্যান্টি-এলিয়াসিং

একটি কম্পিউটারের পর্দায় পিক্সেলের সাহায্যে কোনো কিছু দেখানোর সময় সেই অবজেক্টের সাইডের দিকের কার্ভগুলোতে Jagged Edges বা খাঁজকাটা ভাব আসে। আর এই সমস্যার সমাধানের জন্য অবজেক্টের সাইডের দিকের কার্ভের পিক্সেলগুলোকে ঝাঁপসা (Blur) করে দেওয়া হয়, যাতে কার্ভগুলোতে স্মুথ লাইন ভাব আসে। এই টেকনিককে অ্যান্টি-এলিয়াসিং (Anti-aliasing) বলা হয়।
এর মাধ্যমে কম্পিউটার স্ক্রিণের পিক্সেলগুলোর স্মুথনেস নিয়ন্ত্রণ করা হয়ে থাকে। ভিডিও গেমসে এই Anti-aliasing অপশনটি আপনার লক্ষ্য করলেই পেয়ে যাবেন। এই অপশনটি যত বৃদ্ধি করতে থাকবেন গেমের গ্রাফিক্সের “স্মুথনেস” বা মসৃণ পরিপাটি ভাব ততই বৃদ্ধি পেতে থাকবে এবং অন্যদিকে এই সাথে এটা আপনার কম্পিউটারের উপর চাপ বৃদ্ধি করতে থাকবে।

 ভেক্টর গ্রাফিক্স

রাস্টার গ্রাফিক্সের সমস্যাগুলোর সমাধানের জন্য কম্পিউটার গ্রাফিক্সের আলাদা একটি মেথড রয়েছে। পিক্সেলের সাহায্যে পিকচার তৈরির থেকে এই পদ্ধতিতে সরাসরি সোজা এবং বাঁকা লাইনের মাধ্যমে ছবি আঁকা হয়। এই লাইনকে বলা হয় ভেক্টরস বা বেসিক শেইপ। রাস্টার গ্রাফিক্সে কোনো ছবি তৈরি করার সময় যেখানে শতশত, হাজার হাজার, লক্ষাধিক পিক্সেল ব্যবহৃত হয়। আর ওই পিক্সেলগুলোর একটির সাথে অন্যটির কোনো যোগসূত্র থাকে না।
কিন্তু ভেক্টর গ্রাফিক্সে আঁকা ছবিতে পিক্সেলগুলো একে অপরের সাথে কানেক্টেড থাকে। আর ডটের পরিবর্তে সোজা এবং বাঁকা লাইনের মাধ্যমে ছবিগুলো তৈরি করা হয় বিধায় ভেক্টর গ্রাফিক্সে তৈরি করা ইমেজগুলো কম তথ্য দিয়ে দ্রুত স্টোর করা যায়। আর এই ভেক্টর গ্রাফিক্সের তৈরি করা ইমেজ বা অবজেক্টগুলোকে ম্যাথমেটিক্যাল ফর্মূলার সাহায্যে (Algorithms) খুব সহজেই বড়-ছোট বা যেকোনো সাইজে পরিবর্তন করা যায়। যেমন মাইক্রোসফট ওর্য়াডে আপনি যখন কোনো ফ্রন্ট এর সাইজ বড় করেন এবং করতে থাকেন তখন দেখবেন যে যতই বড় করেন না কেন ফ্রন্টটি ঘোলা হয়ে যাবে না, আবার ভেক্টর গ্রাফিক্সের তৈরি করা কোনো ইমেজ ফাইলটি আপনি এডোব ইলাস্ট্রেটরে যত ইচ্ছে তত বড় করে নিতে পারবেন কোনো প্রকার ঘোলাটে ভাব ছাড়াই। এজন্যই ফটোশপে কোনো ছবিকে আপনি জুম-ইন (Zoom In) বা বড় করলে দেখবেন যে ছবিটি ঘোলা যায় কিন্তু ইলাস্ট্রেটরে এগুলো করলে ঘোলা হয় না।

আবার বর্তমানে মর্ডান কম্পিউটার গ্রাফিক্স প্যাকেজের সাহায্যে আপনি একই সাথে রাস্টার ও ভেক্টর গ্রাফিক্সের সংমিশ্রণে ছবি বা অবজেক্ট ব্যবহার করতে পারবেন। যেমনঃ গিম্প (GIMP) (GNU Image Manipulation Program) গ্রাফিক্স প্যাকেজে আপনি রাস্টার ও ভেক্টর গ্রাফিক্স একত্রে ব্যবহার করে ছবিকে বিটম্যাপ ফাইলে টান্সফর্ম করতে পারবেন।

থ্রিডি গ্রাফিক্স

থ্রিডি গ্রাফিক্স
বাস্তব জীবন কিন্তু কম্পিউটার গেম বা ভার্চুয়াল রিয়েলিটি সিমুলেশন এর মতো নয়। কম্পিউটার গ্রাফিক্স দিয়ে তৈরি করা বর্তমান যুগের সবথেকে বেস্ট CGI (Computer-Generated Imagery) এনিমেশনগুলো দেখলোও আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন কোনটা এনিমেশন আর কোনটা অভিনেতাদের দিয়ে করানো হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে বর্তমানের ছবি নির্মাতারা বেশ বুদ্ধিমান একটি পদক্ষেপ নিয়েছেন। আর তা হলো — সিজিআই (CGI) এবং মানুষ এই দুটির একত্রে ব্যবহার করা।
আর থ্রিডি গ্রাফিক্সকে রিয়েলিস্টিক বা বাস্তবিক করার জন্য একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনের একাডেমিক শিক্ষা ছাড়াও বেশ কঠিন গ্রাফিক্স টেকনিক প্রয়োগ করতে হয়। আর এজন্যই উন্নত বিশ্বে দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনের মাসিক আয় বেশ উচ্চমানের! তারা কম্পিউটারে প্রথমে একটি অবজেক্টের থ্রিডি কম্পিউটার মডেল তৈরি করেন এবং পরবর্তীতে অবজেক্টটির থ্রিডি মডেলকে বিভিন্ন এঙ্গেলে পর্যবেক্ষণ করে থঅকেন।
থ্রিডি কম্পিউটার মডেল তৈরির প্রথম ধাপ হচ্ছে মডেলটির Three-Dimensional Outline তৈরি করা, একে বলা হয় Wire-Frame। কারণ ভেক্টর গ্রাফিক্সের সাহায্যে এগুলো তৈরি করা হয় বিধায় এগুলোকে অনেকটা লোহার তারের মতো দেখতে মনে হয়। এরপর অবজেক্টটির বিভিন্ন বিটসগুলোকে সঠিক ভাবে একে অপরের সাথে লিংক করা হয় যা অনেকটা মানব দেহের কংকালে হাড্ডি লাগানোর মতো। এর মাধ্যমে অবজেক্টটির অংশগুলো বাস্তবিক ভাবে নড়াচড়া করতে পারে। এরপর অবজেক্টটির উপর বিভিন্ন টেক্সচার বসিয়ে একে রেন্ডার (Render) করা হয়। থ্রিডি গ্রাফিক্সের সবথেকে কঠিন কাজ হচ্ছে এই রেন্ডারিং। সঠিক ভাবে রেন্ডারিং করতে কয়েক ঘন্টা থেকে শুরু করে কয়েক মাস পর্যন্ত লেগে যেতে পারে।
থ্রিডি গ্রাফিক্স নিয়ে অনেক কথা বলা যায়, এবং এই টপিক নিয়ে আলাদা একটি বিস্তারিত পোস্ট সামনের কোনো এক দিনে আমি করবো।

কি কি কাজে কম্পিউটার গ্রাফিক্স ব্যবহৃত হয়?

বর্তমানে অনেকগুলো সেক্টরেই কম্পিউটার গ্রাফিক্স ব্যবহৃত হচ্ছে। গ্রাফিক্স ডিজাইন, কম্পিউটার আর্ট, CGI ফ্লিমস, আর্কিটেকচারাল ড্রয়িংস, ভিডিও গেমস এগুলো হচ্ছে কম্পিউটার গ্রাফিক্সের প্রধান ক্ষেত্রস্থল। এছাড়াও বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক গবেষণার কাজগুলোকে সহজ করার জন্যেও কম্পিউটার গ্রাফিক্স ব্যবহৃত হয়, কারণ মানুষের ক্যালকুলেশনের থেকে কম্পিউটার ক্যালকুলেশন ১০০% নির্ভূল হয়। আর কম্পিউটার গ্রাফিক্সে একটি বৈজ্ঞানিক গবেষনার বিভিন্ন সেক্টরের ফলাফলকে যাচাই করার জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে।  ধরুণ একটি ইদূঁরের উপর কোনো বৈজ্ঞানিক গবেষনা চালানো হবে। এক্ষেত্রে ইঁদুরটি গবেষনার কারণে মারা যেতে পারে কিন্তু একটি ইঁদুরের সকল ডাটাগুলোকে যদি আপনি কম্পিউটার গ্রাফিক্সের মাধ্যমে ভাচূর্য়াল ইঁদুর তৈরি করে নিতে পারেন তাহলে আপনি কম্পিউটারেই আপনার বৈজ্ঞানিক গবেষনা প্রয়োগ করতে পারবেন। তবে এটা এখনো বাস্তবে করা সম্ভব হয়ে উঠে নি।
অন্যদিকে গ্লোবাল ওয়ার্মিং নির্ধারণের ক্ষেত্রেও কম্পিউটার গ্রাফিক্সের ভূমিকা রয়েছে, আবহাওয়া বার্তায় কম্পিউটার গ্রাফিক্সের ব্যবহার হয়। আর মর্ডান যুগে কম্পিউটার গ্রাফিক্সের সবথেকে বেশি ব্যবহার হয়ে থাকে মেডিক্যাল ক্ষেত্রে। আপনি যখন আপনার শরীরের কোনো অংশের এক্সরে বা স্ক্যান কপিকে দেখেন তখন সেটা একটি কম্পিউটার গ্রাফিক্সের সাহায্যে তৈরি করা হয়ে থাকে। কম্পিউটার গ্রাফিক্স আবিস্কার করা না হলে এই এক্সরে সিস্টেমটি আমরা আজ পেতাম না। আর আপনি জানেন কি, একটি এক্সরে ছবিতে কোটি কোটি পিক্সেলের কোটি কোটি কম্পিউটার ম্যাথমেটিক্যাল রয়েছে?

বর্তমানের মর্ডান কম্পিউটারের সকল প্রোগ্রামে রয়েছে — জিইউআই (GUI) বা গ্রাফিক্যাল ইউজার ইন্টারফেস (Graphical User Interface)। এর মাধ্যমে আমরা কম্পিউটার মেশিনকে এবং প্রোগ্রামগুলোকে খুব সহজে ব্যবহার করতে পারছি। উইন্ডোজ ৯৫ ছিলো মাইক্রোসফটের প্রথম GUI ভিক্তিক অপারেটিং সিস্টেম, এর আগের অপারেটিং সিস্টেম MS-DOS য়ে কিন্তু এই GUI ফিচারটি ছিলো না বিধায় সাধারণ মানুষের জন্য এই অপারেটিং সিস্টেমটি ব্যবহার করা অনেক কঠিন একটি বিষয় ছিলো।
আশা করবো কম্পিউটার গ্রাফিক্স নিয়ে আপনাদের কে বেসিক ধারণা দিতে পেরেছি। পোস্টটির কোন অংশ পড়ে যদি না বুঝতে পারেন তাহলে সংঙ্কোচ না করে নিচের কমেন্ট বক্সে আপনার প্রশ্নটি করে ফেলতে পারেন। কম্পিউটার গ্রাফিক্স একটি অনেক বড় সেক্টর। একটি ২০০০ শব্দের পোষ্টে যা আটানো কখনোই সম্ভব নয়। তবু আমি আশা করবো কম্পিউটার গ্রাফিক্স সম্পর্কে আপনাদের বেসিক ধারণা দিতে পেরেছি।
আর হ্যাঁ কম্পিউটার গ্রাফিক্স কবে আবিস্কার হয় জানেন কি? সেই ১৯৫১ সালে Massachusetts Institute of Technology (MIT) প্রাইভেট রির্চাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের  Jay Forrester এবং Robert Everett দুজন মিলে Whirlwind নামের একটি মেইনফ্রেম কম্পিউটার তৈরি করেন। কম্পিউটারটি টেলিভিশন মনিটরে বা VDU (visual display unit) তে অপরিমার্জিত ছবি প্রদর্শন করতে পারতো। এইটাই হচ্ছে ইতিহাসে প্রথম কম্পিউটার গ্রাফিক্সের ব্যবহার।

এয়ারটেল সিমে ৯ টাকায় ৫১২ mb ইন্টারনেট | Airtel 512 MB Internet Offer 9 Tk Offer

এয়ারটেল ইন্টারনেট অফার 2018। এয়ারটেলে 9 টাকায় 512 এমবি ইন্টারনেট। দারুন ইন্টারনেট অফার। এই অফারটি এয়ারটেল গ্রাহকরা উপভোগ করতে পারবেন। ইন্টারনেট প্যাকটি নিতে চলে যার MyPlan Apps. মেয়াদ 24 ঘন্টার। গ্রাহকরা উপভোগ করতে পারবেন যে কোন সময়। ইন্টারনেটের Spreed ভলো।

অফারটি কিভাবে নিবেন : – প্রথমে আপনি Airtel MyPlan Apps টি ডাউনলোড করতে হবে। যারা নতুন তারা মোবাইল নম্বর দিয়ের Active করুন। সেখানে গিয়ে Hot Deals Button এ ক্লিক করুন। এর পর নিচে দেখতে পাবেন 512 এমবি 9 টাকায়। এবং সেখানে গিয়ে Button এ ক্লিক করার পর আপনি অফারটি নিতে পারবেন । আপনার account থাকতে হবে 9 টাকা। যদি বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে Screen Short দেখুন।

Airtel Internet Offer 2018.  Airtel 512 MB Internet at 9 tk.   Great Internet Offer.  This offer can be availed by Airtel customers. MyPlan Apps download  to take the Internet Pack . Duration of 24 hour. s Any time customers can enjoy Spreed the Internet.How to avail the offer: First of all you need to download Airtel MyPlan Apps. Activate the new mobile phone number. Go to Hot Deals Button. After this, you can see below 512 MB @ 9. After clicking on the Button, you can take the offer. Your account must have 9 taka. If you have trouble understanding then see Screen Short.


গ্রামীফোন 1 জিবি ইন্টারনেট 21 টাকায় | Gp 1GB Internet at 21Tk

জিপি ইন্টারনেট অফার। গ্রামীফোন 1 জিবি ইন্টারনেট 21 টাকা। গ্রামীনফোনের দারুন ইন্টারনেট অফার 2018। এই ইন্টারনেট প্যাকটি নিতে ডায়াল করুন *5020*3335#. ইন্টারনেটের মেয়াদ 7 দিন। অফারটি নিতে পারবেন সর্বোচ্চ একবার। ইন্টারনেট অফারটি 3 জি, 4 জি সিমে ব্যবহার করা যাবে। আমি অফারটি ব্যবহার করেছি। নিচের স্ক্রিন সর্ট দেখুন।

অফারের শর্তসমূহ :

★ ইন্টারনেট প্যাকটি একবার ব্যবহার করা যাবে।
★ অফারটি Active করতে ডায়াল করুন *5020*3335#.
★ ইন্টারনেট প্যাকটি একবার ব্যবহার করা যাবে।
★ মেয়াদ 7 দিন।

GP 1gb Internet 21tk offer.  Grameenphone 1 GB Internet 21 Tk.  Grameenphone’s Great Internet Offer 2018.  Take this internet  offer  dial * 5020 * 3335 #.  Internet time is 7 days. Offer the highest one time. Internet offers can be used in 3G, 4G SIM. I used the offer. See the screenshot below.
Offer Terms :
The internet pack can be used once.To activate the offer dial * 5020 * 3335 #.Once you can get the offer. And those who have used earlier can not take it anymore.Expiry 7 days.
tag: gp 1 gb Internet 21 tk, gp 21 tk 1 gb Internet offer, জিপি ১ জিবি ইন্টারনেট ২১ টাকায় । জিপি ২১ টাকায় ১ জিবি ইন্টারনেট অফার, জিপি ইন্টারনেট অফার ২০১৮ ।

ঈদ মোবারক sms | অগ্রিম ঈদের শুভেচ্ছা sms মেসেজ

** ঈদ শুভেচ্ছা রাশি রাশি,,মন রেখো হাসি-খুশি.!গোস্ত খেও বেশি বেশি.!Miss করোনা মুরগি-খাসি.!দাওয়াত রইল আমার বাড়ি,,চলে এসো তারাতারি । *ঈদ মোবারাক*

**  আজ দু:খ ভুলার দিন, আজ মন হবে যে রঙ্গিন। আজ প্রান খুলে শুধু গান হবে, আজ সুখ হবে সিমাহীন। তার একটাই কারন, আজ যে ঈদের দিন। ঈদ মোবারাক !!

** শপ্ন গুলো সত্যি হোক, সকল আশা পুরনো হোক। দু:খ দুরে যাক, সুখে জীবন ভরে যাক। জীবনটা হোক ধন্য, ঈদ মোবারাক তোমার জন্য। ঈদ মোবারাক!!

** মন চাইছে কারো সাথে কথা বলি।মন চাইছে কোন প্রিয়জনকে স্মরণ করি।ঈদ মোবারক বলার সিদ্ধান্ত যখন নিলাম।ভাবলাম তোমাকে দিয়েই শুরু করি । - ঈদ মোবারক-

**  দিনে গরম,রাতে শীত,সামনে আসতেছে কুরবানি ঈদ।সাদা রুটি মাংসের জোল,খাইতেতুমি করনা ভুল.ঈদে থাকবে হাসি খুশি,সবাই কে রেখ পাশাপাশি।অগ্রিম ঈদ মোবারক

** ফুলে ফুলে সাজিয়ে রেখেছি এই মন । তুমি আসলে দুজনে মিলে আনন্দ করবো সারাক্ষণ । বন্ধু তুমি আসবে বলে দরজায় থাকি দরিয়ে । ঈদ মোবারক , শুভ হোক তোমার ঈদের দিন ।

** সোনালি সকাল, রোদেলা দুপুর, পরন্ত বিকেল, গুধোলী সন্ধা, চাদণি রাত। সব রঙ্গে রাঙ্গিয়ে থাক আপনার সারাটি বছর, সারাটি জীবন। এই কামনায় "ঈদ মোবারাক"

**  বাকা চাদের হাসিতে,দাওয়াত দিলাম আসিতে।আসবে কিন্তু বারিতে, খাবে আবার অল্প।করবে অনেক গল্পও।আস্তে যদি নাই পার আমার দাওয়াত গ্রহন করও।

** চিঠি দিয়ে নয়"ফুল দিয়ে নয়"কার্ড দিয়ে নয়"কল দিয়ে নয়"মনের গহীন থেকে মিষ্টি SmS দিয়ে জানাই সবাই কে"অগ্রিম ঈদের শুভেচছা "ঈদ মোবারক"

**  নতুন পোশাক পরে নিও, বেশি করে ঈদের সেলামী নিও । সেমাই খেও পেট ভরে ঘুরাফেরা করো মন ভরে । ঈদ মোবারাক বলো প্রান খুলে ।

** আনন্দের এই সময় গুলো, কাটুক থেমে থেমে । বছর জুড়ে তোমার তরে, ঈদ আসুক নেমে । “ঈদ মোবারক”

** পড়েছে আজ চাঁদের নজর,তাইতো পেলাম ঈদের খবর।হাসছে চাঁদ আজ জুড়ে আকাশ,সবাই পেলো ঈদের বাতাস।সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা।_____ঈদ মোবারক____

** নতুন সকাল নতুন দিন। শুভ হোক ঈদের দিন। নতুন রাত বাকা চাঁদ। রঙ্গীন হোক ঈদের রাত।.....ঈদ মোবারক ...

**  কিছু কথা অব্যাক্ত রয়ে যায়, কিছু অনুভূতি মনের মাঝে থেকে যায়, কিছু স্মৃতি নিরবে কেদে যায়, শুধু এই একটি দিন সব ভুলিয়ে দেয় " ঈদ মোবারক "

** তোর ইচ্ছে গুলো উরে চলুক পাখনা দুটি মেলে, দিন গুলি তোর যাকনা কেটে এমনি হেসে খেলে, অপূর্ন না থাকে যেন তোর কোনো শখ, এই কামনায় বন্ধু তোকে ঈদ মোবারক

** ঈদের শুভেচ্ছা জানাই তোমাকে, অনেক বেশি খুশি ঘিরে রাখুক তোমাকে, সব আপনজনের মায়া মাতিয়ে রাখুক তোমাকে, শুধু যখন সালামি পাবে মনে করিও আমাকে

**  বন্ধু তুমি অনেক দূরে, তাই তোমার কথা মনে পরে, সুন্দর এই সময় কাটুক খুশিতে, সব কষ্ট ভুলে যেও আপনজনের হাসিতে, "ঈদ মোবারক"

**  রং লেগেছে মনে মধুর এই ক্ষনে, তোমায় আমি রাংগিয়ে দিবো এই ঈদের দিন, " ঈদ মোবারক "

**  এই এসএমএস, যার কাছে যাবি, যাকে পাবি, তাকেই আমার সালাম দিবি, লাল গোলাপের ভালোবাসা দিয়ে ঈদের দাওয়াত জানাবি, আর মিষ্টি করে বলবি ঈদ মোবারক

** বলছি আমি আমার কথা, ঈদে থাকবে নাকো মনের ব্যাথা, আমার জীবনে অনেক চাওয়া, ঈদ থেকে সব পাওয়া, ঈদের প্রতি তাই এত্ত ভালোবাসা, ঈদ মোবারক

**  শুভেচ্ছা রাশি রাশি গরু না খাসি? টিক্কা না ঝালফ্রাই? এনটিভি না চ্যানেল-আই? রিলাক্স না বিজি? শাড়ি না শার্ট? Wishing from heart ... EID MUBARAK

**  যে দিন দেখবো ঈদ এর চাঁদ খুশি মনে কাটাবো রাত নতুন সাজে সাজব সেদিন সেদিন হলো ঈদের দিন আনোন্দে কাটাবো সারা দিন! ঈদ মোবারক

**  আজ দু:খ ভুলার দিন, আজ মন হবে যে রঙ্গিন। আজ প্রান খুলে শুধু গান হবে, আজ সুখ হবে সিমাহীন। তার একটাই কারন, আজ যে ঈদের দিন। ঈদ মোবারাক !!

**  শপ্ন গুলো সত্যি হোক, সকল আশা পুরনো হোক। দু:খ দুরে যাক, সুখে জীবন ভরে যাক। জীবনটা হোক ধন্য, ঈদ মোবারাক তোমার জন্য। ঈদ মোবারাক!!

** কিছু কথা অব্যক্ত রয়ে যায়, কিছু অনুভূতি মনের মাঝে থেকে যায়, কিছু ভালবাসার স্মৃতি নিরবে কাদে। শুধু এই দিন সব ভুলিয়ে দেয়, ঈদ মোবারাক !!

** সোনালি সকাল, রোদেলা দুপুর, পরন্ত বিকেল, গুধোলী সন্ধা, চাদণি রাত। সব রঙ্গে রাঙ্গিয়ে থাক আপনার সারাটি বছর, সারাটি জীবন। এই কামনায় "ঈদ মোবারাক"

** দিনে গরম রাতে শীত সামনে আসছে কুরবানি ঈদ, সাদা রুটি মাংসের ঝোল, খেতে তোমরা করোনা ভুল । ঈদে থাকব হাসি খুশি তোমাকে চাই পাশাপাশি।

**  ফুলে ফুলে সাজিয়ে রেখেছি এই মন । তুমি আসলে দুজনে মিলে আনন্দ করবো সারাক্ষণ । বন্ধু তুমি আসবে বলে দরজায় থাকি দরিয়ে । ঈদ মোবারক , শুভ হোক তোমার ঈদের দিন ।

** দিনে গরম রাতে শীত সামনে আসছে কুরবানি ঈদ, সাদা রুটি মাংসের ঝোল, খেতে তোমরা করোনা ভুল । ঈদে থাকব হাসি খুশি তোমাকে চাই পাশাপাশি। অগ্রিম ঈদ মোবারক

** হাঁসের ডিম মুরগির ডিম"দেখা হবে ঈদের দিন" ঈদ মানে আনন্দ 'ঈদ মানে খুশি' ঈদের দাওয়াত না দিলে মারবো একটা ঘুষি! ঈদ মোবারক

** ফুল সুবাস দেয়, দৃষ্টি মনচুরি করে, খুশি আমাদের হাসায়,দুঃখ আমাদেরকাদায় , আর আমার এই এসএমএস তোমাকে ঈদের শুভেচছা জানায়। ঈদমোবারাক

** কষ্টের আড়ালে সুখের রাশি, প্রতিটা জীবনকেই আমি ভালোবাসি। তাই প্রতিটা জীবনের প্রতিটা সময় শুভ হোক। সবাইকে জানাই ঈদ মোবারক।

** ইচ্ছে করে বলতে তোমায় সত্যি ভালোবাসি, বলতাম ঠিকই থাকলে তুমি আমার পাশাপাশি। কোন দূরেতে আছিস বন্ধু আয়না আমার কাছে, আজকের দিনে তোকে আমার পরছে খুব মনে। ঈদ মোবারক।

**  সারা দেশে চলছে ঈদের উৎসব। ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি। ঈদ মানে হাজার কষ্টের মাঝেও একটুখানি হাসি। ঈদ মোবারক।

**  ঈদ মানে আঁকাশে নতুন চাঁদ.ঈদ মানে নতুন চাওয়া পাওয়ার স্বাদ.ঈদ মানে মেহেদী রাঙা হাত.ঈদমানে আমারবাড়ীতে তোমার দাওয়াত. ঈদ মোবারক

** আমার বাড়ি আইসো সখী নতুন সাজে সেজে, ঈদের পোশাক দিব তোমায় বইসো আমার পাশে। পোলাও কোরমার সাথে দিব 7আপ খেতে। ঈদের দিন করবো মাস্তী দুজন মোরা মিলে। ঈদ মোবারক।

** আজকে খুশির বাঁধ ভেঙেছে, ঈদ এসেছে ভাই ঈদ এসেছে শাওআলের চাঁদ ওই উকি দিয়েছে, সবার ঘরে আজ ঈদ এসেছে সেই দিন আর নয় বেশি দূর, রমযান শেষ হলে কাটবে অপেখখার ঘোর। ঈদ মোবারক

**  শুভ রজনী, শুভ দিন, রাত পেরোলেই ঈদের দিন। উপভোগ করবে সারাদিন, ঈদ পাবে না প্রতিদিন। দাওয়াত রইলো ঈদের দিন। “ঈদ মোবারক”

**  শুভ ক্ষন, শুভ দিন। মনে রেখ চির দিন। কষ্ট গুলো দূরে রেখ, স্বপ্ন গুলো পুরন করো, নতুন ভালো স্বপ্ন দেখো, আমার কথা মনে রেখ। ঈদ মোবারক

**  সুন্দর আকাশ সুন্দর দিন ঈদের বাকি কিছুদিন ঝড় বৃষ্টি রোদের দিন আসবে কিন্তু ঈদের দিন নদীর ধারে সাদা বক তোমাদের জানায়""অগ্রীম. ঈদ মোবারক

** লাল শাড়ি পরে হাতে চুড়ি দিয়ে.. ঘুরবে যখন রিক্সায়,, পাশে কিন্তুু নিও আমায়..!! ঈদ মোবারক

** আকাশের নীল দিয়ে, হৃদয়ের ছোঁয়া দিয়ে, সবুজের অরণ্য দিয়ে, সাগরের গভীরতা দিয়ে তোমাকে জানাই ঈদের শুভেচ্ছা। ঈদ মোবারক।

** ঈদ মানে হাসি, ঈদ মানে আশা। ঈদ মানে তোমার প্রতি আমার ভালোবাসা। ঈদ মানে দুর আকাশে মিষ্টি চাঁদের হাসি। ঈদ মানে সুখ সাগরে সবাই মিলে ভাসি। ঈদ মোবারক.

** দূরের মানুষ আসুক কাছে, কাছের জন থাকুক পাশে, মন ছুটে যাক তোমার টানে, নয়া চাদের আগমনে, কাটুক খুশি সবার মনে ¤¤ঈদ বোবারক ¤¤

**  হ্যালো প্রিয় এন্ড প্রিয়তম, আর মাত্র কয়েক দিন | আসছে সবার খুশির দিন ! নতুন জামা কিনে নিন, সময় নেই বেশি দিন| দাওয়াত রইল অগ্রিম, আসবেন কিন্তু ঈদের দিন, অপেক্ষায় থাকবো সারাদিন.

** যেদিন দেখব ঈদের চাঁদ, খুশি মনে কাটবে রাত। নতুন সাজে সাজব আজ, আজ হলো ঈদের দিন আনন্দে কাটবে সারাদিন। ঈদ বোবারক

** চাঁদ উঠেছে ফুল ফুটেছে দেখবি কে কে আয়, নতুন চাঁদের আলো এসে পড়ল সবার গায় । ঈদ মোবারাক

**  ঈদের দাওয়াত তোমার তরে, আসবে তুমি আমার ঘরে। কবুল করো আমার দাওয়াত, না করলে পাবো আঘাত। তখন কিন্তু দেবো আড়ি, যাবো না আর তোমার বাড়ি। ঈদ মোবারক সবাই কে ঈদের অভিনন্দন

**  রিমঝিম এই বৃষ্টিতে, ঈদ কাটাবো সৃষ্টিতে. খুশির হাওয়া লাগলো মনে, নাচবে খুকি ক্ষণে ক্ষণে সাজবে সবায় নতুন পোশাক, ঈদ যেন সারা জীবন রয়ে যাক "ঈদ মোবারক"

**  রঙ লেগেছে মনে। মধুর এই খনে। তোমায় আমি রাঙ্গিয়ে দিবো ঈদের এই দিনে। ঈদ মোবারাক

**  মেঘলা আকাশ মেঘলা দিন, ঈদের বাকি কিছু দিন, কাপড় চোপড় কিনে নিন, গরিব দুঃখির খবর নিন, দাওয়াত রইল ঈঁদের দিন. *) “ঈদ মোবারক” (*

**  ভোর হলো দুর খোল, চোখ মেলে দেখরে। রোযা শেষ রোযা শেষ, ঈদ চলে এল রে। নতুন জামা পড়ব রে, হাসি খুসি থাকব রে . ঈদ চলে এল সবার দুয়ারে। শুভেচ্ছা রয়লো সবাইকে . ঈদ মোবারক ।

** আজ খুশির বাধ বেঙেছে ।উঠছে ঈদের চাদ ।গুম নাইরে গুম নাইরে আজ সারা রাত ।গাছে গাছে নতুন কলি ফুটবে এবার ফুল ।সবার জন্য রইল আমার ঈদের আমন্তন ।ঈদ মোবারক

**  ঈদ" মানে খুশী' গরুর গলায় রশী' শীতের শর্দি কাসি' আবার হুজুরের মুখে হাসি' তবুও ঈদ" ভালোবাসি' তাই সবাইকে ঈদমোবারক জানিয়ে এবার আমি আসি!

**  ঈদ আনে বস্তা ভর্তি খুশি, তাই তুমি খেয়ো পেট পুরে পোলাও আর খাশি। তাই বলে ঈদ কখনো হবে না বাসি, ঈদ মোবারক।

**  ঈদ আসতে 1 দিন বাকি.....! এতো খুশি কোথায় রাখি......! বলাটা অনেক ইজি! ঈদের কাজে সবাই বিজি...! একটি বছর ঘুরে আসবে সেই দিন....! ঈদের খুশি বিলিয়ে দেওয়ার প্রস্তুতি নিন....! অনেকেই বিজি ঈদের কাজে....! আনান্দ টা সবার মাঝে.......!

** আমি বলতে চেয়েছি- তবে বলতে পারিনি, আমি জানাতে চেয়েছি- তবে জানাতে পারিনি, আমি বুঝাতে চেয়েছি- তবে বুঝাতে পারিনি, কিন্তু আজ বলার সময় এসেছে,,, তোমরা আমার ঈদের দাওয়াত গ্রহন করে কেন আসোনি,,, উত্তর দাও???

**  গরু কিনবো খাশি কিনবো ঈদ গাহেতে যাবো, নামায শেষে বাড়ি ফিরে গোশত দিয়ে খাবো। গরীব দুখী আসবে বাড়ি হাসবো সবে মিলে, কাঁধে কাঁধ রেখে চলবো রবেনা ক্রোধ দিলে। গোশত দিবো গরীব যারা খাবে মজার সাথে, যাবার বেলা তারা আবার গোশত নিবে হাতে।।

Bangla Latest Romantic Sms for Girlfriend and Boyfriend

Romantic SMS in Bangla for GF: If you love anyone from deep in your heart, but he / she doesn't know your love for him / her very much and you want to revealed your love in front of your lover! If yes, then you can try them. Latest Bangla Romantic Sms Collection for Girlfriend / boyfriend . This is the only thing you can apply to accord anyone. 

Whe he / she gets your SMS and reads then they can realize about Feel your relations with love and romance. And after that when you are involved in a relationship with your lover and you want to make your lover happy for every moment? then you should love , Romantic and feelings sms by Bangla Romantic Sms For Girlfriend .

Here we are try to present a few remarkable collection of Bangla Romantic Sms For Friend. As a Bangladeshi people search on google by Bangla Romantic Sms in Bangla Font , but you can choose the best collection Bangla Romantic Sms 2016 in english font, after that you can convert it by Bangla font. But truly I want to say Bangla Romantic Kobita and Bangla Romantic Sms For Love is the best thing girlfriend and boyfriend want from you.

Bangla Romantic Sms For Girlfriend

Bangla Romantic Sms For Girlfriend
Bangla-Romantic-Sms-For-Girlfriend
Nirobota Noy, Govirota Ke Bissash Koro 
Chokh Diye Noy, Mon Diye Tumar Priyo Jon To Bhalobasho 
Asha Diye Noy, Bhalobasha Diye Bhalobasha Joy Koro. 

******************** 

Kemne Je Buhjai Kotota Valobashi Tomake! 
Hoyto Tumi Shobi Bujho 
Bujhe O Na Bujhar Ban Koro? 
Naki Asole O Bujo Na! 
Naki Amake Valobaso Na ??? 

******************** 

"" Ami Suker Bisti "" "" dukhey Jhoriye jai !! 
"" ami Sopner Pujari "" "" kolponate Hariye Jai !! 
"" Ami Shodhayar Prodip "" "" Shokale Nibhe Jai !! 
"" Ami Emon ekjon Manush "" "" Jake Shobai Bhule Jai !! 

******************** 

Mone Pore tumay 
bhule Gecho ki Amay? 
Valobashi tumay tumi 
Ki Basho Amay?
chai Sudu tum tumi 
Ki Chao Amy? 
amar Hridoye Sudhu tumi 
tumar Hridoye Ki Achi Ami? 

******************** 

Shomoy-to Onek Hoy, Godhulir Moto Noy 
Chand-to Onek Hoy, Purnimar Moto Noy 
Fulto Onek Hoy, Golaper Moto Noy 
Bondhuto Onek Hoy, tumar Moto Noy, 
I wish Your Longevity. 

******************** 

Dibo Tomay Laal Golap 
Shopne Giye Korbo Bolbo 
Khule Alaap Amar Kotha 
Ache Joto Moner Betha 
Bolbo Tomay Valobation 
Thakbo Dujon PashaPashi! 

********************

Bangla Romantic Sms For Friend

Bangla Romantic Sms For Friend
Bangla-Romantic-Sms-For-Friend
Tomi Ki Jano Akash Keno Kade? 
Tom Mon Kharap Bole! 
Tomi Ki Jano Ful Keno Fote? 
Tomake Debe Bole! 
Tomi Ki Jano Tomi eto Valo Keno? 
tomi Amar Valobasha Bole! 

******************** 

Valobeshe Tomay Debo Golap Rojonigondha 
Shobsomoy Mone Korbo Bokal Sondha 
Tara Dance Kache Eshe Pashe Eshe Bosho 
Beshi Na Amay Ektu Valobasho! 

******************** 

Hridoy Amar Pokay Dhora 
Tomai Shara Ami Badhon Hara 
Tumi Jodi Chau 
Ami Jibon Tao 
Tobuo Pari Committee is Bole Jaw Valobasi. 

******************** 

Laal Ful paata Sobuj 
Mon Keno eto obujh 
Kotha kom kaaj Beshi
Mon Chay Fry Kache Ashi 
Megh Chay Brishti 
Chaad Chay Nishi 
Mon Bole Ami Tumay onek Valobashi 

******************** 

Khuje nebo tumay hridoyer gohine! 
Khuje nebo tumay joshna raate junakir alote! 
Khuje Nebo Tumay Udash Dupure! 
Jekhanei thakona tumi jotoy dure! 

********************

Bangla Romantic Sms For Love

Bangla Romantic Sms For Love
Bangla-Romantic-Sms-For-Love
Tumi amar obujh pakhi bhalobasar jaan 
Tumay chere kemon kore bache amar pran 
Sotti Tumay bhalobashi ogo janer jaan 
Tumar jonno diye dibo amar obujh pran 

******************** 

ekta shomoy khub kosto laage 
Je shomoy choker pani felte hoy 
Kintu jei shomoyta aro iron kosto lage 
Jokhon choker Osru lukiye rek hashte hoy 

******************** 

Achi aaR koydin 
chole jabo 
ekdin valobasbo tumy bolbona je protidin 
jedin chole khoma koreo dio 
hoyto kosto diyechi tumake 
hashi mukhe biday dio amake! 

******************** 

kichu ta shomoy gambling thako pashe 
mone mone hoy ei dehe pran ache
shomoy bakita jure moron amar 
Hridoy jure name otoi Adar 

******************** 

icche kore Tumay Sotti valobashi Bolte Bolte 
tikiye thakle pashapashi amar tumi 
keno durotte achish Bondhu ayna amar Kache 
Aaj -ker dine toke amar porche kub mone 

******************** 

Ki bhabe bholbo tomake ami! 
jhokon tumi sudhui royecho amar bhabona jure 
ki vabe chaibona tomake ami? 
jhakon tumi sudhui royecho amar shopno jure 
ki vabe bhalobasbona tomake ami? 
jokhon tumi sudhui royecho amar ontor jure 
ki vabe jete dei tomake ami? 
jokhon tumi sudhui royecho amar deho jure! 

******************** 

Tomar mukhe hashi-tuku lage amar valo
tumi amar valobasha beche thakar alo 
raajar jemon rajjo ache amar 
acho tumi tumay niye amar jibon temni modhumoy. 

******************** 

Monta Amar Pete Chay Sudhu tumake 
Ar Koto Din Thakbe Bondhu Bhule Amake 
Onek Shopome Jome Ashe Amar Cokher Kone 
ekdin tumi Fire Eshe Valobasbe More! 

********************

Bangla Romantic Sms In Bangla Font

Bangla Romantic Sms In Bangla Font
Bangla-Romantic-Sms-In-Bangla-Font
ei Mon chai sudhu tomay Valobasi 
ei Mon chai sudhu tomar kache Ashi 
ei Mon chai tummy mukher ektu Hashi 
ei Mon chai sudhu thakte stir fry Pashapashi! 

******************** 

Valobashi Tomay Ami Valobeshe Jabo 
Moner Moddhe ekta Asha Tomay Ami Pabo 
Tumi Hoy To Amar upor Rag Korte Paro 
Rag jodi koro Tumi, tumay Valobasbo Aro. 

******************** 

Moner Majhe Shopno Sajai Shudho toke Niye 
Tore Chara Obujh hRidoy Cholbe Ki Diye? 
Tui Amar Noyon Moni ondhokarer Alo 
Tui Chara ek Muhurto Lagena je Valo. 

******************** 

Diner Suchonay Chai Tomay 
Rater Jochonay Chai Tomay 
Boro Beshi bhalobashi Ami Tomay
ek Mutho Prem Jodi Deu 
ek Prithibi Sukh Dibo 
Aar Tomake Apon Kore Nibo. 

******************** 

Kobitar Upomay Khujini tumay 
Khujini Gaaner Shure 
Jani tumi Acho Shudhu Amar Ei hRidoy Jure 
Hajaro Prosner ek Tai Answer 
aaR Karo Noy tume Shudhui Amar 

**** **************** 

ecche Kore Apon Mone Shara Akas Gurte 
Iccha Kore Pakhir Moto Megher majhe Urte
Icche Kore Chander Moto Pub akashe Uthte 
Eccha kore Fuler Moto Gondo Niye Futte 
aar Iccha Kore tumake Valobese sat -rønge Rangate!


******************** 

Bhalo Lage Tor Chokhe Chokh Rakhte 
bhalo Lage Tor Sathe Onekta Poth Haat Te 
bhalo Lage Tor Sathe Shopner Jaal Bunte 
Aar ei Mon Chai Sharata Jibon Toke Said Kore Valobaste 

******************** 

Janina Keno eto bhabi Shudhu tumay 
Janina Keno Sudhu Mone Pore tumay 
Janina Keno Sudhu Dekhte Icche Kore tumay 
Ami Sudhu Jani ei Obuj Mon whisper Valobase tumay! 

********************

Bangla Romantic Kobita

Bangla Romantic Kobita
Bangla-Romantic-Kobita
Shanto Nodir dheu-er majhe 
Monta shudu Tomay khuje 
Boshe achi tai nodir tire 
Koto je Shopno Tomay ghire 
Tumi shudhui amar 
hobe Shob shomoy Pashe robe. 

******************** 

Bidhi Tumi Toh Shob-i Jano 
jano Moner Kotha. 
Ajo Toh Pelam Na Amar Bam Pajorer Dekha 
Je Amay Valobashe Pashe Thakbe Sharati Khon 
Je Amay Valobashe Rangiye Dibe Amar Bhubon 
Bolo Na Bidhi Tar Dekha Pete Ar Koto-Khon ??? 

******************** 

Ami GoDhuliR tane DigonteR Onek kache 
Ami Aro Ektu Rongin tumi Royeche Je AmaR Pashe 
Tobu kemon Jani shunnota Ei GoDhuli LoGone !! 

******************** 

emon Kono Din ache?
Hoyni Dekha Tor Sathe? 
emon Kono Raat ache? 
hoyni Kotha Tor Sathe? 
Bondhure Tobu Keno bhule Thakish Sudhu Amare? 
Onek Valobashi Bondhu Ami Tore! 

******************** 

Tumi Shondha Akasher Sukh Tara 
Rater Akashe Jhosna Hoye Deo Amay Pahara 
Tumi bhorer Snigdho Matal Eve 
Jar sporshe Ami Hoye Jai Dishe Hara 

****** ************** 

ek Koti Bochor Age 
Jonmechilo Tumar Jonno 
Valobasa Ekhono Kore Achi Opekka. 
Tumi Valobashbe Bole! 
Tomake Dhorte ashi nai 
Esechi Dhora Dite. 

******************** 

Adhar Ghorer Baati Tumi Chander O Hashi 
Amsr Theke Tomay Ami Onek Valobashi
Josna Rater Tara Tumi Moner Akasher Chand
Tumi Amay Bhalobesho Diba Nishi Raat.

********************

Ei Prithibir Buke Jodi tumake
Amar Cheye Beshi Keu Valobashe
Please Shedin Amake ektu Khobor Dio
tumar Hashi Mukta ekta Nozor Dekhe 
Shara Jiboner Jonno tumar Cokher Aral Hoye Jabo
Kotha Dilam..!

********************

Shopner Shuru tumake Diye
bhalo Lagar Prothom Muhurto Gulo tumake Niye!
Nistobdo Rat Kate tumar Kotha Vebe!
Tai Hoyto ei Moner Shob "Valobasha tumay Ghire".

********************

Prodip Jaliye Rekho Adhar Kete Jabe
Chokh Bujhe Theko Shopno Dekhte Pabe
Mon Khule Rekho Sukh Ure Ashbe
Hridoy Diye Dekho tumar Majhe Amay Khuje Pabe.

********************

Cheye Dekho Chander Dike
Koto Kosto Tar Buke
Kokhono Meghe Dheke Jaay
Kokhono Adare Harai
Tobu Shob Kichu Vule Hashe
Karon Se Akash Ke Vishon bhalobase

********************

Brishti Pore Akash Jure
mon Je Kade tomar Tore
bondhu tumi Onek Dure
tumar Laagi Poran Je Pure
Esho tumi Amar Tore
Bashbo Valo Jibon Vore

********************

Ami valobashbo take je amake
hasate na parle o kadabe na
shuk dite na parle o dukkho dibe na
ful dite na parle o kata dibe na
buk bhora valobasha dite na parle o kosto dibe na
je amar shuk dukkher shanti hobe amon keu ki ase?

********************

Ami Chad Chaina, Se Uthbe Rate
Ami Raat Chaina, Se Harabe Probhate
Ami Ful Chaina, Se Jorbe Diner Sheshe
Chai ekta Sundhor Mon, Je KoKhono Vulbe Na Amake

********************

Bangla Romantic Sms 2016

Bangla Romantic Sms 2016
Bangla-Romantic-Sms-2010
Prosno Jetai Hok, uttor tumi
Rasta Jetai Hok, lokkho tumi
Kosto Jotoi Hok, sukh tumi
tumar sathe Jotoi Rag Kori Na Keno
amar Priyo valobasha all time Tumi!

********************

Adhar Ghorer Baati Tumi Chader O Hashi
Amar Theke Tomay Ami Onek Valobashi
Jhochna Rater Tara Tumi Moner Akasher Chad
Tumi Amay Bhalobesho Diba Nishi Raat. 

********************

Valobashi sudhu tumay, tumi Keno bojhona?
Hater upor hat rekhe, amay chere jeona
tumi amar din, tumi amr raat 
bhalobeshe tumar ami dhorte chai hat.

********************

Rat Noi Chand Ami 
Shei Chader Alo Tumi
Mati Noi Ful Ami
Shei Fuler Koli Tumi
Akash Noy Megh Ami
Sei Megher Bristhi Tumi
eivabe Shara Jibone
Mishe Robo Tumi aaR Ami.

********************

Amar Onek Sukh ache, Lagle kichu nio
Tomar joto koshto ache, Amay Dia Dio
Tomar Akash Meghla Hole AMay khobor Dio
Brishti Hoye Jhorbo Ami Apon Kore Nio.

********************

majhe majhe nijeke khob eka lage
jokhon tumi pashe na thako
ami valo na basho
keno amake eka rakhe chole gecho tumi?

********************

Jani Na Tui Kemon Achish?
tai Bolchi How aeR you?
Hoy To Tui Valoi Achish Amake Vule
Vul Kore O Ki 
Purono Diner Kotha Mone Pore Na Tor?

********************

Chader Alo Dibo Tomay Dibo Onek Ful
Dibo Tomay Shanto Shagor Nil Noder Kul
Aro Dibo Jochna Tomay Dibo Pakhir Sur
Shara Jibon Bashbo bhalo Jeo Na Kobhu vule

********************

Mishti kothay mon bhorale
korle eki jaadu?
tumar jonne pagol ogo pagol tumar bondhu
Mon boshena kono kaje
kori ki ekhon? 
Taito tumay niye ami bhabi sharakkhon.

********************

Dur Akashe Megh Jomeche Ashbe Abar Bristi
Amar Moner Valobasha Tomar Jonno Sristi
Tumi Amar Moner Majhe Dukkho Suker Hashi
Ki Kore Boli tomaye Koto VALOBASHI

********************

Bhalobasha holo Rongdhonu er moto
saatRong chara jemon Rondhonu hoyna
Temni Hashi, Kanna, Rag, Oviman
Nirobota, Biswash, Shopno chara valobasha hoyna!

********************

Best Bangla Love sms for girlfriend 2016

Best Bangla Love sms for girlfriend 2016
Best-Bangla-Love-sms-for-girlfriend-2016
protidin jodi ekta golap 
tomar hate tule diya boli
tomake ami valobashi 
hoyto prithibir shob golap sesh hoye jabe
tobuo amar valobasha ektuo sesh hobe na
karon amar valobasa obinoshsor

********************

Kaajol kalo akhi tumar, Mayabi tumar mukh
Na dekhte parle tumay, Amar lage na je sukh
Misti tumar kotha aar mishti tumar hashi
Taito tumay ami etota valobashi. 
Akash bhora bristi ar bristy bheja pani
tumi amay onek valobasho ekotha ami jani.

********************

Valobasha mane na kono badha
Valobasha hoyna kokhono sadha
Valobasha sob somoy thake rongin
Valobasha hoyna kokhono songihin
Valobasha holo akaser mit miti taroka
Tarporeo valobashay thake onek betha.

********************

tumake valobeshe katiye dibo ei jibon
Tumake chara thakte parbona anonto jibon
Amar valobasha diye tumake aagle rakhbo shara jibon
Tumio ki evabe valobasho amake

********************

chander ache koto alo seto nejar noy
amar chokhe koto abeg cheye dekho oi
shamne tomar chader pahar pichonete ami
eder bhetor bolo konta tomar kache dami ?

********************

Tumi amar ice cream
tomake poti rate dakhi dream
tumi shei jon jake diyechi mon
tumi amar ashar alo
taito tomai beshechi valo

********************

Tumi amar shob na pawar moddhe ekmatro paowa
jodi kokhono harate hoi tomake
sei din age nijeke duniya theke hariye felbo
Ami tomake atotai valobashi
amar ontor jure shudhu tumi acho sudhu tumi!!

At the end we want tell you something, Make your relation complete by zeal and intimacy by sending the Romantic SMS in Bangla for Girlfriend as well as in English. here you can read also Bangla Sad Sms in Bangla Sms website.