সেরা ১০ টি সিপিএ (CPA) নেটওয়ার্ক সাইট


অনলাইনে ইনকাম করার যত গুলো মাধ্যম রয়েছে তার মধ্যে একটি পরিচিত নাম হল সিপিএ মার্কেটিং। সিপিএ মার্কেটিং হলো যেখানে আপনাকে বিভিন্ন কোম্পানীর অফার প্রচার করতে হবে এবং বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করতে হবে যেমনঃ ইমেইল, জিপকোড, পিন সাবমিট ইত্যাদি।
যেহেতু সিপিএ মার্কেটিং একোন পণ্য বিক্রয় করতে হয়না তাই এর মাধ্যমে তুলনামূলকভাবে সহজেই উপার্জন করা যায়।
সিপিএ মার্কেটিং করার জন্য প্রথমে যেকোন একটি সিপিএ নেটওয়ার্কে একাউন্ট করতে হবে। সিপিএ মার্কেটিং করার জন্য অনেক ভালো ভালো নেটওয়ার্ক রয়েছে। নতুনদের জন্য বড় মার্কেট গুলোর মাধ্যমে কাজ শুরু না করাই ভালো। নতুনরা ছোট নেটয়ার্ক দিয়ে কাজ শুরু করতে পারে।


Maxbounty:
Maxbounty হল সিপিএ মার্কেটিং নেটওয়ার্কের মধ্যে অতিপরিচিত এবং জনপ্রিয় একটি নেটওয়ার্ক। সিপিএ ইন্ডাস্ট্রিতে ২০০৪ সাল থেকে এর যাত্রা শুরু। এই নেটওয়ার্কে প্রায় ১০০০ এর চেয়েও বেশি সিপিএ অফার রয়েছে। বাংলাদেশ থেকে অনেকে সিপিএ মার্কেটিং এর জন্য এই নেটওয়ার্ক পছন্দ করে। এই নেটওয়ার্ক থেকে প্রতি সপ্তাহে পেমেন্ট পাওয়া যায় তবে অন্তত ৫০ ডলার হতে হবে। এই নেটওয়ার্ক থেকে পেমেন্ট পাওয়া যায় চেক, পেপাল এবং পেওনিয়ার ইত্যাদি মাধ্যমে।


PeerFly:
এই নেটওয়ার্কেও ১০০০ এর ওপর অফার রয়েছে। PeerFly নেটওয়ার্ককে বলা হয় সবচেয়ে দ্রুত সফল হওয়া একটি নেটওয়ার্ক। বিভিন্ন ধরনের নিশের অফার রয়েছে এই নেটওয়ার্কে। যেহেতু পেওনিয়র দ্বারা এই নেটওয়ার্কে কাজ করা যায় তাই এই নেটওয়ার্কে কাজ করতে কোন সমস্যা হয় না। এছাড়া পেপালের মাধ্যমেও এই নেটওয়ার্ক থেকে টাকা উত্তোলন করা যায়। তবে আপনি যদি নতুন মার্কেটার হোন তাহলে এই নেটওয়ার্কে পরবর্তীতে যুক্ত হওয়া উত্তম যখন আপনি ভালো বুঝবেন। কারণ নতুনদের এই নেটওয়ার্কে অনুমোদন পাওয়া একটু কঠিন। আবার আনুমোদন পেলেও কাজে দক্ষ না হলে নিজের একাউন্ট টিকিয়ে রাখা কঠিন হয়ে পড়ে।


Adworkmedia:
সিপিএ নেটওয়ার্কের মধ্যে একটি অন্যতম নেটয়ার্কের নাম হল Adworkmedia. এটি বেশ জনপ্রিয় একটি নেটওয়ার্ক। Adworkmedia –এর জনপ্রিয়তার অন্যতম কারণ হল এই নেটওয়ার্কে সহজেই একাউন্ট করা যায়। এছাড়া এই নেটওয়ার্কে রয়েছে কন্টেন্ট লকিং এবং প্রোডাক্ট লকিং সিস্টেম। যার মাধ্যমে সহজে লিড পাওয়া যায়। পেওনিয়ারের মাধ্যমে এই নেটওয়ার্ক থেকে টাকা উত্তলোন করা যায়। তবে টাকা উত্তোলন করার জন্য অন্তত ৩৫ ডলার হতে হবে। আপনি যদি কাউকে রেফারেন্সের মাধ্যমে এই নেটওয়ার্কে যুক্ত করতে পারেন তাহলে তার ইনকামের ৩% কমিশন পাবেন।


CPA Trend:
সিপিএ ট্রেন্ড এর মাধ্যমেও শুরু করতে পারেন আপনার সিপিএ মার্কেটিং ক্যারিয়ার। এই নেটওয়ার্কেও রয়েছে প্রায় ১০০০ অফার। এই নেটওয়ার্কে বিভিন্ন ধরণের কমিশনের কাজ করতে পারবেন যেমনঃ সিপিএল, সিপিএস, সিপিএ। পেমেন্ট মেথড হচ্ছে পেপাল, পেওনিয়ার, চেক, ব্যাংক ওয়্যার। পেমেন্ট তুলতে প্রয়োজন অন্তত ৫০ ডলার।


CPA Lead:
সিপিএ মার্কেটিং এর জন্য CPA লিড হল খুব পরিচিত একটি নেটওয়ার্ক। এই নেটয়ার্কে বিভিন্ন ধরনের অফার রয়েছে। Adworkmedia এর মত এই নেটওয়ার্কেও কন্টেন্ট লকিং সিস্টেম রয়েছে। যার ফলে অনেকেই এই নেটওয়ার্কে কাজ করতে পছন্দ করে। এছাড়া এই নেটওয়ার্কে সাধারণত CPA(Click Per Action)এবং CPL(Click Per Lead) ধরণের অফার থাকে। আপনি যদি চান রেফারেন্সের মাধ্যমেও এই নেটয়ার্কে ইনকাম করতে পারেন। ইনকামের টাকা পেওনিয়ারের, পেপাল, ওয়্যার ট্রান্সফারের মাধ্যমে উত্তোলন করা যায়।


Click Dealer:
টপ সিপিএ নেটয়ার্কের মধ্যে একটি নেটওয়ার্কের নাম হল Click Dealer. এই নেটওয়ার্কে CPC, CPL, CPI(Cost Per Impression), CPA, CPS(Cost Per Sale)এর মাধ্যমে কমিশন পেতে পারেন। তবে এই নেটওয়ার্কে একটি সমস্যা হল ৫০০ ডলার ছাড়া টাকা উত্তোলন করা যায় না। পেওনিয়ারের মাধ্যমে এই নেটওয়ার্ক থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন। যদি রেফারেন্স এর মাধ্যমে এই নেটওয়ার্কে মার্কেটার যুক্ত করতে পারেন তাহলে তাদের ইনকামের ২%কমিশন পাবেন।


OGads:
বর্তমান সময়ে ভালো সিপিএ নেটওয়ার্কের মধ্যে OGads একটি নাম। এই নেটওয়ার্কে প্রায় ৭০০ এর অধিক সিপিএ অফার রয়েছে যা নিয়ে খুব সুন্দর ভাবে কাজ করতে পারবেন। এই নেটওয়ার্কের রিভিউও ভালো। পেওনিয়রের মাধ্যম টাকা উত্তোলন করা যায় তাই সহজেই কাজ করতে পারবেন। রেফারাল কমিশন ৫% তাই অন্যদের এই নেটওয়ার্কে যুক্ত করাও লাভজনক। পেমেন্ট তুলতে কমপক্ষে ৫০ ডলার হতে হবে।


Clickbooth:
Clickboothহল আরেকটি পরিচিত এবং দ্রুত সফল হওয়া সিপিএ নেটয়ার্কের নাম। এই নেটওয়ার্কে বিভিন্ন রকমের সার্ভিস এবং পণ্যের অফার রয়েছে।এই নেটওয়ার্কে কাজ করে সিপিএ, সিপিএল, সিপিএস এর মাধ্যমে কমিশন পাবেন। এই নেটওয়ার্ক থেকে টাকা উত্তোলন করতে কমপক্ষে ৫০ ডলার প্রয়োজন। চেক, পেপাল, ওয়ারের মাধ্যমেও টাকা উত্তোলন করা যায়।


W4:
জনপ্রিয় নেটওয়ার্ক গুলোর মধ্যে আরেকটি নাম হল W4. এই নেটওয়ার্কেও রয়েছে ৮০০ এর বেশি অফার। যেমনঃ বিউটি, কুপন, হেল্‌থ, ওয়েট লস, শিক্ষা, খাবার, গেইম, ইন্সুরেন্স, মোবাইল আপ্স ইত্যাদি। মাসিকভাবে এই নেটওয়ার্ক থেকে পেমেন্ট উত্তোলন করা যাবে। কমপক্ষে ৫০ ডলার হতে হবে। আর রেফারাল কমিশন ১%। এই নেটওয়ার্কে একাধিক ম্যানেজার রয়েছে যাদের সাহায্য নিতে পারবেন।


Adsmain:
এই নেটওয়ার্কে ২০০০ এর বেশি অফার রয়েছে। কমিশন দেওয়া হয় CPA, CPL এবং CPS ভিত্তি এর মাধ্যমে। এই নেটওয়ার্কেও পেমেন্ট উত্তোলন করতে হলে ৫০ ডলার হতে হবে। তবে পেমেন্ট তুলতে চেক, ওয়্যার বা পেপালের মাধ্যমে তুলতে পারবেন। এই নেটওয়ার্ক ৫% রেফারাল পেমেন্ট দিয়ে  থাকে।তাই অন্যদেরকে এই নেটওয়ার্কে জয়েন করিয়েও আপনি উপার্জন করতে পারবেন। তবে অবশ্যই সিরিয়াস মার্কেটারদের এই নেটওয়ার্কে জয়েন করাবেন। এই নেটওয়ার্কে রয়েছে ৫ জন Affiliate মান্যাজার। যেকোন সমস্যা সমাধানের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন।
এই নেটওয়ার্ক গুলো ছাড়াও আরো অনেক নেটওয়ার্ক রয়েছে যেখানে কাজ করতে পারেন। কোন একটি নেটওয়ার্কে অনুমোদন না পেলে আরেকটি হতাশ হয়ে বসে থাকবেন না। আরেকটি নেটওয়ার্কে চেষ্টা করুন।
সর্বশেষে বলা যায়, বেশির ভাগ নেটওয়ার্ক এই টাকা উত্তোলন এর জন্য কমপক্ষে ৫০ ডলার উপার্জন করতে হয় এবং বেশিরভাগ নেটওয়ার্ক এর পেমেন্ট মেথড হচ্ছে PayoneerPayoneer এ অ্যাকাউন্ট খোলা ফ্রী এবং অ্যাকাউন্ট খুললেই আপনি আপনার মাষ্টার কার্ড এর জন্য এপ্লাই করতে পারবেন। আপনার Payoneer এ অ্যাকাউন্ট না থাকলে অ্যাকাউন্ট খুলতে এই লিঙ্ক এ যান – লিঙ্ক

1 comments so far

Good : Visit > IT CARE WROLD


EmoticonEmoticon