কিভাবে উইন্ডোজ ১০ (windows 10) আপডেট ফাইল থেকে ISO ফাইল বানাবেন

Tags

কিভাবে উইন্ডোজ ১০ (windows 10) আপডেট ফাইল থেকে ISO ফাইল বানাবেন।  মাইক্রোসফট এর উইন্ডোজ ১০ এর লেটেস্ট আপডেট এ বছরের এপ্রিলে বের হয়েছিলো। এভাবে মাঝেমধ্যেই উইন্ডোজ ১০ এর বড়সড় আপডেট আসে। আমরা যারা জেনুইন উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করি তাদের জন্য এইসকল নতুন আপডেট মুক্তির সাথে সাথেই পিসিতে আপগ্রেড করার ব্যবস্থা মাইক্রোসফট করে রাখে। কিন্তু অনেকসময় পিসি নস্ট হয়ে গেলে কিংবা নতুন পিসিতে উইন্ডোজ দেবার সময় আমাদেরকে আবারো সেই একই প্রক্রিয়ায় নতুন করে উইন্ডোজ আপডেট দেবার প্রয়োজন হয়।

উইন্ডোজ ১০ এর মেজর আপডেটগুলোর সাইজ ৩ গিগাবাইটের উপরে, তাই আপনার ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের স্পিড যদি 3Mbps হয়ে থাকে তাহলে এই আপডেটটি ডাউনলোড করতেই আপনার ৩ থেকে ৪ ঘন্টা সময় লাগবে, তারপর আপনার বর্তমান উইন্ডোজ ১০ থেকে নতুন আপগ্রেড করতে আরো ৯০ মিনিট!


উইন্ডোজ ১০ এর এই মেজর আপডেটগুলো মাইক্রোসফট তাদের নিজস্ব ডিজিটাল আপগ্রেড ফাইল সিস্টেম (ESD) আকারে আমাদের পিসিতে ডাউনলোড করিয়ে থাকে। আর আমরা চাইলে সহজেই এই ESD ফাইল কে ISO তে রূপান্তর করে নিতে পারবো এবং পরবর্তীতে প্রয়োজন পড়লে সরাসরি নতুন উইন্ডোজ ১০ সংষ্করণে ফ্রেশ উইন্ডোজ সেটআপ দিতে পারবো। এতে করে আমাদের প্রচুর সময় বেঁচে যাবে!

বি:দ্র: এ পদ্ধতি কাজ করার জন্য আপনাকে আগে থেকেই একবার উইন্ডোজ ১০ এর আপডেট দিতে হবে। আমি এখানে ছোটখাট আপডেটের কথা বলছি না। এখানে মেজর আপডেটের কথা বলছি যেখানে উইন্ডোজ ১০ এর বিল্ড সংষ্করণ (Build Version) আপগ্রেড করা হয়। একবার উইন্ডোজ ১০ এর পুরোনো সংষ্করণ থেকে নতুন সংষ্করণে ইন্টারনেটের মাধ্যমে আপগ্রেড করানোর পর আমাদের পিসিতে নতুন সংস্করণটি ESD ফাইল ফরম্যাটে থেকে যায়। আজকের পোষ্টে আমি ESD ফাইলটিকে ISO ফাইলে কিভাবে রূপান্তর করবেন সেটা দেখাবো। তারপর আপনার চাইলে এই ISO ফাইলকে Blank DVD তে বার্ন করিয়ে নিতে পারেন কিংবা ফ্ল্যাশ ড্রাইভে বুটেবল আকারে সেটআপ করে রাখতে পারেন।

ESD ফাইলটি খুঁজে বের করা

উইন্ডোজ ১০ এর মেজর আপডেট মূলত ২ ভাবে হয়ে থাকে। ২টি পদ্ধতিতেই নতুন আপগ্রেডটি esd ফাইল আকারে ডাউনলোড হয় কিন্তু ২টি পদ্ধতিতে ফাইলটির লোকেশন ২টি স্থানে হয়ে থাকে। আমাদের প্রথম কাজটি হবে আপগ্রেড ফাইলটি (esd) খুঁজে বের করা।
আপনি যদি Settings > Update & Security > Windows Update এই পদ্ধতিতে উইন্ডোজ আপডেট দিয়ে থাকেন মানে নিচের চিত্রের মতো
তাহলে আপনার উইন্ডোজ আপগ্রেড এর esd ফাইল সি ড্রাইভের $windows.~BT নামের ফোল্ডারে থাকবে। উল্লেখ্য যে এই$windows.~BT ফোল্ডারটি হিডেন করা থাকবে তাই ফোল্ডারটি দেখতে হলে আপনাকে এক্সপ্লোরার ফাইল মেন্যু থেকে View > Hidden Items বক্সে টিক চিহ্ন নিয়ে দিতে হবে। $windows.~BT > Sources  ফোল্ডারটি থেকে esd ফাইলটি কপি করে আপনার কম্পিউটারের যেকোনো একটি ড্রাইভে একে রাখুন।
আবার আপনাকে যদি Windows 10 Update Assistance সফটওয়্যারটি দিয়ে আপগ্রেড দেওয়ানো হয় তাহলে কিন্তু আগের লোকেশনে আপনি esd ফাইলকে খুঁজে পাবেন না।
Windows 10 Update Assistance দিয়ে যদি উইন্ডোজ আপগ্রেড করে থাকেন তাহলে C ড্রাইভ ছাড়া অন্য যেকোনো ড্রাইভে চেক করলে দেখতে পাবেন যে Windows10Upgradeনামের একটি ফোল্ডার রয়েছে এবং সেটার ভিতরে esd ফাইলটি থাকবে।
এই ESD ফাইলকে অন্য কোথাও নতুন ফোল্ডারে কপি করে রাখুন।

ESD থেকে ISO

উইন্ডোজের আপগ্রেড ফাইলটি চিহ্নিত করা হয়ে গেলে এবার আমাদের কাজ হচ্ছে এই esd ফাইলকে iso ফরম্যাটে রূপান্তর করা। এর জন্য আমরা DISM++ GUI নামের একটি সফটওয়্যারকে ব্যবহার করবো।
প্রথমে DISM++ GUI সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন নিচের লিংক থেকে:

১) আনজিপ করুন, ফোল্ডারের ভিতর দুটি সংষ্করণ দেখতে পাবেন। আপনার সিস্টেমটি ৩২বিটের হয়ে থাকে তাহলে x86 সংষ্করণটি চালু করুন এবং আপনি যদি ৬৪ বিটেরউইন্ডোজ চালান তাহলে x64 সংষ্করণটি চালু করুন।
২) ইউজার এগ্রিমেন্ট উইন্ডো আসবে Accept বাটনে ক্লিক করুন।
৩) এবার File মেন্যুতে ক্লিক করুন; তারপরESD — > ISO অপশনে ক্লিক করুন।
উইন্ডোজ ১০
৪) এবার প্রথম বক্সে আপনার esd ফাইলটি কোথায় রেখেছেন সেটা সিলেক্ট করে দিন এবং নিচের বক্সে iso ফাইলটিকে কোথায় সেভ করবেন সেটাও সেট করে দিন। তারপর Finish বাটনে ক্লিক করুন।
উইন্ডোজ ১০
৫) আপনার উইন্ডোজ আপগ্রেড ফাইলটি esd থেকে iso তে কনভার্ট হতে থাকবে। ৩০ মিনিটের মতো অপেক্ষা করুন। (আপনার পিসির গতির উপর কনভার্ট টাইমটি নির্ভর করবো)
উইন্ডোজ ১০
৬) এখন যে স্থানে iso ফাইলটি সেভ করবেন বলে সফটওয়্যারে দেখিয়ে দিয়েছিলেন সেখানে চলে যান। সেখানে গিয়ে দেখবেন আপনার iso ফাইলটি তৈরি হয়ে গিয়েছে।
উইন্ডোজ ১০
এবার এই ISO ফাইলটি ডিভিডিতে বার্ন করে কিংবা পেনড্রাইভে বুটেবল করে নিয়ে আপনি নতুন আপডেটের ফ্রেশ উইন্ডোজ দিতে পারবেন; নতুন করে উইন্ডোজ আপগ্রেডের ঝামেলা ছাড়াই!
এভাবে সহজেই আমরা আমাদের আপগ্রেডকৃত পিসি থেকে ফ্রেশ উইন্ডোজ iso ইমেজ বের করে নিতে পারি। পরবর্তীতে নতুন করে উইন্ডোজ দেবার সময় কিংবা অন্য পিসিতে ফ্রেশ উইন্ডোজ দেবার সময় আমরা এই নতুন iso ফাইলকে ব্যবহার করে সময়সাপেক্ষ্য উইন্ডোজ আপগ্রেড থেকে বেঁচে যেতে পারি। তবে এখানে লক্ষ্যনীয় একটি কথা রয়েছে। আপনি যে পিসি থেকে এই পদ্ধতিতে উইন্ডোজ iso টি বের করে নিবেন লক্ষ্য রাখতে হবে সেই পিসির লাইসেন্স কী অনুযায়ী আপনি উইন্ডোজ সংষ্করণটি পাবেন। যেমন পিসিটি যদি উইন্ডোজ ১০ প্রো হয়ে থাকে তাহলে iso টি win10Pro সংষ্করণের হবে, Home হয়ে থাকলে win10Home সংস্করণের হবে ইত্যাদি।

1 comments so far


EmoticonEmoticon