ইংরেজিতে কথা বলার ও প্রিপারেশন নেবার সহজ কৌশল! জেনে নিন এখনি …



ইন্টারভিউ হোক বা কোনও সেমিনার-ইংরেজিতে কথা বলতে পারা সবসময়ই জরুরি৷ অনেকেরই ইংরেজি লেখায় ভাল দখল থাকলেও, বলার ক্ষেত্রে তেমন সড়গড় হন না৷ নিয়মিত বলার অভ্যাস থাকে না বলে অনেকে আবার সমস্যায় পড়েন৷ অথচ সাধারণ কিছু জিনিস খেয়াল রাখলেই ইংরেজি বলা নিয়ে আর সংকোচে পরতে হবে না৷ থাকল সেরকমই কিছু টিপস-

এক. কী কী বলতে হবে তালিকা তৈরি করুন ইন্টরভিউতে যে ধরনের প্রশ্ন করা হয় সেগুলোর উত্তর, বা নিজের সম্বন্ধে আপনি যা যা বলতে চান, সেই কথাগুলো প্রতিদিন বলতে থাকুন৷ ইংরেজিতে কথা বলতে গিয়ে প্রধান যে সমস্যা দেখা দেয় তা হল সঠিক শব্দটি সঠিক সময়ে মনে পড়ে না৷ আসলে আমরা যে যার মাতৃভাষায় কথা বলতে অভ্যস্ত বলে আমাদের ভাবনায় সেই ভাষার শব্দই প্রথমে আসে৷ এই অসুবিধা দূর করতে গোড়াতেই বাড়াতে হবে শব্দের ভাঁড়ার বা স্টক অফ ওয়ার্ডস| প্রতিদিন নতুন যে ইংরেজি শব্দের সঙ্গে পরিচয় হবে তা একটা জায়গায় লিখতে থাকুন৷ এভাবে সপ্তাহখানেক গেলেই বাড়বে শব্দের সংখ্যা| সেগুলো নিয়মিত নাড়াঘাঁটা করলেই দেখা যাবে, কথা বলার সময শব্দের জন্য আর হাতড়াতে হচ্ছে না৷

দুই. নিজের কথা রেকর্ড করুন ও ভুলগুলি বুঝুন শব্দের ভাবনা যখন আর ভাবতে হচ্ছে না, তখন মাথায় রাখুন উচ্চারণের কথা৷ নিজের উচ্চারণে ভুল হচ্ছে কি না জানতে নিজের কথা রেকর্ড করুন৷ এবং বারবার শুনতে থাকুন৷ তাহলেই বোঝা যাবে, কথা বলতে গিয়ে জড়িয়ে যাচ্ছে কি না বা কোনও শব্দের উচ্চারণে অসুবিধা হচ্ছে কিনা৷

তিন. ইংরেজি কথা শুনুন, গান বা সিনেমা দেখুন উচ্চারণ শুধরোতে ইংরেজি গান শুনুন বা সিনেমা দেখুন৷ ইংরেজি বক্তৃতা বা মোটিভেশনল স্পিচ শুনতে পারেন৷ শুনে জেনে নিন আপনার উচ্চারণে এবং শব্দের আসল উচ্চারণে তফাৎ কোথায় হচ্ছে| সেই বুঝে উচ্চারণ শুধরোন৷ আবার বলুন, রেকর্ড করুন ও শুনুন| এভাবেই উচ্চারণের সমস্যা কেটে যাবে৷

চার. ধীরে ধীরে কথা বলার চেষ্টা করুন তড়িঘড়ি করে কথা বলার কোনও প্রয়োজন নেই৷ যদি নিজের কথার রেকর্ড শুনতে গিয়ে শোনেন কথা জড়িয়ে যাচ্ছে, তাহলে ধীরে ধীরে কথা বলাই বাঞ্ছনীয়৷ মনে রাখবেন, ধীরে হলেও নির্ভুল বলাই কাম্য ৷

পাঁচ. সংকোচ ছেড়ে ইংরেজিতে কথা বলুন নিজেকে ইংরেজিতে কথা বলার উপযোগী করে নেওয়ার পর, বন্ধু বা পরিচিতদের সঙ্গে ইংরেজিতে কথা বলার চেষ্টা করুন৷ তাতে প্রাথমিকভাবে কিছু ভুল হতে পারে৷ তবে সংকোচ করার কিছু নেই৷ এই সংকোচ ঝেড়ে ফেলতে পারলেই কথা বলায় সাবলীল হয়ে ওঠা সম্ভব৷যত বেশি কথা বলা হবে, জড়তা কাটবে ততো বেশি৷

ছয়. অনুবাদ করবেন না কথা বলতে গিয়ে মাতৃভাষা থেকে অনুবাদের চেষ্টা করবেন না৷ এভাবে কোনও ভাষায় সাবলীল কথা বলা সম্ভব নয়৷বরং আপনার ভাবনার সঙ্গে ওই ভাষাটির যোগসূত্র স্থাপনের চেষ্টা করুন| অর্থাৎ আপনি যেটা ভাবছেন, সেই জিনিসটার শব্দ যেন ওই ভাষাতেই আপনার মনে আসে৷ এতেই কথায় স্বতঃস্ফূর্ততা আসবে, নাহলে নয়৷

সাত. চলতি ভাষায় খেয়াল রাখুন যদি অনেক শব্দ মনে রাখায় সমস্যা হয় তবে বিভিন্ন ‘ফ্রেজ’ রপ্ত করতে পারেন৷ আবার ‘ফ্রেজ’ রপ্ত করতে সমস্যা হলে আলাদা করে শব্দে প্রকাশ করাই ভাল৷তবে খেয়াল রাখুন কথ্য ভাষায় কী ধরনের ইংরেজি শব্দ ব্যবহার হচ্ছে৷ তাহলে আপনার বলা কথা অনেক স্বাভাবিক শোনাবে৷


EmoticonEmoticon